আজ বিকেল থেকে শুরু হচ্ছে ব্যালট পেপার পৌঁছে দেয়ার কাজ

আজ মঙ্গলবার ২৫ ডিসেম্বর বিকেল থেকে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বিভিন্ন জেলাতে ব্যালট পেপার পাঠানো শুরু হচ্ছে। সরকারি মুদ্রনখানা (বিজি প্রেস) থেকে কঠোর নিরপাত্তায় ব্যালট পেপারগুলো পাঠানো হবে। আজ প্রথমদিনে পার্বত্য জেলাগুলো ছাড়াও দূরবর্তী জেলাগুলোতেও পাঠানো হবে ব্যালট পেপার।

আজ থেকে শুরু হচ্ছে জেলাগুলোতে ব্যালট পেপার পৌঁছে দেয়ার কাজ। ইসি সূত্র জানায়, ইতোমধ্যে ২২৩ আসনের ব্যালট মুদ্রন পুরোপুরি শেষ। জামায়াত নিয়ে ইসির সিদ্ধান্ত এবং কয়েকটি আসনে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকায় সেখানকার ব্যালট মুদ্রণ করা যাচ্ছে না। ইসির সিদ্ধান্ত পেলে আজকালের মধ্যেই সেগুলোও ছাপানো হবে। ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেছুর রহমান জানান, ভোট গ্রহণের সার্বিক প্রস্তুতি শেষ। ব্যালট মুদ্রণও শেষ পর্যায়ে। কয়েকটি আসনে আদালতের নির্দেশনা রয়েছে। সেই আসনগুলোয় শেষ মুহূর্তে ব্যালট মুদ্রণ হবে।

নির্বাচন উপলক্ষে জেলায় জেলায় নির্বাচনী সামগ্রী পাঠিয়েছে ইসি। ব্যালাট পেপার ছাড়া অন্য সামগ্রী পাঠানো হয়েছে। ইসি কর্মকর্তারা জানান, সংসদ নির্বাচনের শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতিও প্রায় সম্পন্ন। নির্বাচনি প্রশিক্ষণও শেষ। ভোট গ্রহণের জন্য সিল-প্যাডসহ নির্বাচনী সামগ্রী ইতোমধ্যে জেলা পর্যায়ে পৌঁছে দেয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশন ভবন থেকে স্ট্যাম্প প্যাড, অফিসিয়াল সিল, মার্কিং সিল, ব্রাশ সিল, লাল গালা, অমোচনীয় কালির কলম, হেসিয়ান বড় ব্যাগ, হেসিয়ান ছোট ব্যাগ, চার্জার লাইট, ক্যালকুলেটর, স্ট্যাপলার মেশিন ও স্টাপ পিন ইত্যাদি সামগ্রী পাঠানো হয়েছে। ইসির ক্রয় ও মুদ্রণ শাখার প্রশাসনিক কর্মকর্তা কামরুল হাসান এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘ব্যালট পেপার বাদে অন্য সব নির্বাচনী সামগ্রী আমরা বিতরণ করেছি। আজ বিকেলে ব্যালট পেপার বিতরণ শুরু হবে। অনেক জায়গায় আমাদের ২৭ ডিসেম্বরের মধ্যে ব্যালট বিতরণের সময় বেধে দেয়া হয়েছে।’

তবে যাই হোক না কেন, আগামী ২৮ তারিখের মধ্যে সব আসনের ব্যালট মুদ্রণ সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।