নির্বাচনী প্রচারণায় ৫ বছর পর শ্বশুরবাড়ির এলাকায় প্রধানমন্ত্রী

নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে ৫ বছর পর আজ শ্বশুরবাড়ির এলাকা রংপুরের পীরগঞ্জে এসেছেন শেখ হাসিনা। দুপুর আড়াইটার দিকে পীরগঞ্জ আসনের মহাজোট মনোনীত প্রার্থী স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে ২০১৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পীরগঞ্জ এসেছিলেন তিনি।

এদিকে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে বেলা ১১টার দিকে বিমানে ঢাকা থেকে নীলফামারীর সৈয়দপুরে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকে সড়ক পথে রংপুরের তারাগঞ্জের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন তিনি। বেলা সাড়ে ১১টায় রংপুরের তারাগঞ্জে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আহসানুল হক চৌধুরী ডিউকের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ হিসেবে জনসভায় ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মমতাজ উদ্দিন জানান, প্রধানমন্ত্রী রংপুর সফরকালে বেলা সাড়ে ১১টায় তারাগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ মাঠ ও দুপুর আড়াইটার দিকে পীরগঞ্জ আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে যোগ দেন। এ উপলক্ষে দুই উপজেলায় ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এজন্য তিন স্তরের নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয়া হয়েছে ওই দুই উপজেলা।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, তারাগঞ্জে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তারাগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ মাঠে রংপুর-২ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আবুল কালাম আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক সমর্থনে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য দেন। এরপর দুপুর আড়াইটায় পীরগঞ্জ উপজেলার পীরগঞ্জ উচ্চবিদ্যালয় মাঠে তিনি এক নির্বাচনী জনসভায় অংশগ্রহণ করেন।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে তারাগঞ্জ ও পীরগঞ্জে চলছে দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের সমাগম। জনসভার আগে পীরগঞ্জের ফতেপুর জয় সদনে যান প্রধানমন্ত্রী। সেখানে জোহরের নামাজ আদায়ের পর দুপুরের খাবার খেয়ে প্রয়াত স্বামী বিশিষ্ট পরাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার কবর জিয়ারত ও নিকট আত্মীয় স্বজনের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। নৌকার প্রার্থী স্পিকার ড. শিরীন শারমিনের সমর্থনে জনসভা শেষে ঢাকার উদ্দেশে রংপুর ত্যাগ করবেন তিনি।