‘নির্বাচনের কোন গ্যারান্টি না থাকায় আমরা প্রচারণায় নেই’

শনিবার দুপুরে মতিঝিলে বলিয়াদী ম্যানশনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে নির্বাচনী মাঠে আওয়ামী লীগ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করছে অভিযোগ করে গাজীপুর-১ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী ও বিএনপির সাবেক স্থায়ী কমিটির সদস্য এডভোকেট চৌধুরী তানবীর আহমদ সিদ্দিকী বলেন, নির্বাচনের কোন গ্যারান্টি না থাকায় আমরা প্রচারণায় নেই৷ এ অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, আমরা মাঠে নামতে পারছি না৷ এখানে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বলে কিছু নাই। যা আছে সব অত্যাচার, নির্যাতন, হামলা আর মামলা।

আওয়ামী লীগের প্রতি আরো অভিযোগ করে তিনি বলেন, আজকে ২২ ডিসেম্বর, নির্বাচনের আর মাত্র ৭ দিন বাকি। এর মধ্যেও আমরা প্রচারণায় নামতে পারছি না।

তানবীর সিদ্দিকী সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের সহযোগিতা ছাড়া আমাদের প্রচারণা চালানো সম্ভব না। আমরা মাঠে নামলেই মারপিট করবে৷ পুলিশ লাঠিসেটা দিয়ে মারে৷ আবার মামলা দেয় আমাদের বিরুদ্ধেই৷ আপনাদের সহযোগিতা না পেলে নির্বাচনে অংশ নিতে পারছি না। গাজীপুর-১ আসন থেকে কখনো কিছু করতে পারবো বলে মনে হয় না।৷

এসময় তিনি সেনাবাহিনী মোতায়েন করলে কিছু করা সম্ভব বলে মন্তব্য করে বলেন,  আর্মি যদি নামে তাহলে কিছু করতে পারি৷ তারা নামলে নির্বাচনের ৫-৬ দিন কিছু করতে পারবো আশা করি৷

ভোটারেরা ভোট দিতে ইচ্ছুক। ধানের শীষের জন্য তারা প্রস্তুত। কথা হলো তারা ভোট দিতে পারবে কিনা। মাঠ আমাদের পক্ষে। ভোটের দিন মাঠে শেষ পর্যন্ত থাকবে বলে জানান তিনি।

এসময় আওয়ামী লীগের লোকজন নিজেদের অফিস ভাঙচুর করে বিএনপির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, তানবীর আহমেদ সিদ্দিকীর ছেলে চৌধুরী ইশরাক আহমদ সিদ্দিকী, বিএনপির সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা খন্দকার আব্দুস সালাম, গাজীপুর জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ভিপি ইব্রাহিম,  বিএনপি নেতা আশরাফ সিদ্দিকী প্রমুখ৷