নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে আমার উপর হামলা হচ্ছেঃ সালাউদ্দিন আহমেদ

বুধবার রাজধানীর শ্যামপুরে নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন ঢাকা ৪ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী আলহাজ্ব সালাউদ্দিন আহমেদ। বৈরী পরিস্থিতি মোকাবেলা করেই শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবেন বলে জানান তিনি। বাড়ি বাড়ি গিয়ে নেতাকর্মীদের হয়রানি ও গ্রেপ্তার করা হচ্ছে অভিযোগ করে নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন সালাউদ্দিন আহমেদ।

বিএনপির এই প্রার্থী বলেন, নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে তার উপর বারবার হামলা হচ্ছে জানিয়ে সকল বৈরী পরিস্থিতি মোকাবেলা করে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন প্রাক্তন এই সংসদ সদস্য।

সালাহ্উদ্দিন আহমেদ বলেন, তফসিল ঘোষণার পর থেকে আমার নির্বাচনী এলাকার বিএনপি ও জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার ও হয়রানি করা হচ্ছে। ১০ ডিসেম্বর নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হওয়ার পর আমাদের গণসংযোগের লাগানো ইত্যাদি কার্যক্রমে পুলিশ ও আমার প্রতিদ্বন্দ্বী লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থীর প্রার্থী সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা অব্যাহত বাধার সম্মুখীন হচ্ছি।

তিনি বলেন, নির্বাচনী কার্যক্রমে আমার শ্যামপুরের বাসাটি প্রধান অফিস হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। সেখানে নেতা-কর্মীরা আসলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাদের নেতাকর্মীদের ভয়ভীতি দেখায়। এই বিষয়ে নির্বাচন কমিশন লিখিত অভিযোগ জানিয়েও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি।

১০ ডিসেম্বর থেকে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত গণসংযোগ এবং প্রচার প্রচারনায় একাধিক হামলা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সর্বশেষ মঙ্গলবার দুপুরে এলাকার গুন্ডি ঘর এলাকায় গণসংযোগ চালানোর সময় একদল দুর্বৃত্ত আমরা চলায় এবং গাড়ি ভাঙচুর করে। এজন্য তিনি শ্যামপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ ও ৫১ নং ওয়ার্ড কমিশিনার কাজী হাবিবুর রহমান হাবুকে দায়ী করেন।

সকল বৈরী পরিস্থিতি মোকাবেলা করে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করে ধানের শীষের এই প্রার্থী বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন যদি সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ নিশ্চিত না করে এবং পুলিশের পক্ষপাতমূলক আচরণ নিয়ন্ত্রণ না করেন তাহলে আমার নির্বাচনী এলাকার ভোটাররা তাদের মূল্যবান ভোটের অধিকার প্রয়োগ করতে পারবে কিনা সে বিষয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে।’

নির্বাচন কমিশনকে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করার কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার এলাকার ভোটাররা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে নিরপেক্ষ আচরণ আশা করে এর ব্যত্যয় ঘটলেই পরিণাম কারও জন্যই ভালো হবে না।’