ঘূর্ণিঝড় ফেথাইয়ে রূপ নিয়েছে বঙ্গোপসাগরে থাকা নিম্নচাপটি

আজ রোববার সকাল ছয়টার দিকে চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে দক্ষিণ–পশ্চিমে অবস্থান করছিল ঘূর্ণিঝড় ফেথাই। এটি আরও ঘনীভূত হতে পারে সমুদ্রবন্দরগুলোকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে বঙ্গোপসাগরে থাকা গভীর নিম্নচাপটি। আজ চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১ হাজার ৫২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ–পশ্চিমে অবস্থান করছিল ঘূর্ণিঝড় ফেথাই। আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে বলা হয়েছে, এটি আরও উত্তর বা উত্তর–পশ্চিমে অগ্রসর ও ঘনীভূত হতে পারে। গতকাল শনিবার রাতে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড়টি কক্সবাজার থেকে ১ হাজার ৪৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ–পশ্চিমে, মোংলা থেকে ১ হাজার ৪৪০ কিলোমিটার দক্ষিণ–পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ১ হাজার ৪২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ–পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার। এটি দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের কাছে সাগর খুবই উত্তাল। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। সেগুলোকে গভীর সাগরে না যেতেও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।