পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ, ২০জন নেতাকর্মী আহত

সিরাজগঞ্জে শুক্রবার সন্ধ্যায় শহরের আইআই কলেজ রোড ও বিএনপি কার্যালয়ের পাশে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে জেলা বিএনপির সভাপতি ও দলীয় প্রার্থী রোমানা মাহমুদসহ অন্তত ২০জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এ সময় পুলিশের একটি গাড়ির গ্লাস ভাঙা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু বলেন, নির্বাচনী প্রচারণার উদ্দেশ্যে রোমানা মাহমুদের বাসার সামনে থেকে মিছিল নিয়ে বিএনপি কার্যালয়ে যাওয়ার খবরে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে দিয়ে সশস্ত্র মিছিল করে এবং বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। বিষয়টি পুলিশকে অবগত করা হলে পুলিশ দলীয় কার্যালয়ের আশাপাশে অবস্থান নেয়। সন্ধ্যার পর আমরা কলেজ রোড দিয়ে মিছিল নিয়ে মোড়ে যাওয়ার পরই পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করলে সংঘর্ষ বেধে যায়। পুলিশের বাবার বুলেটের আঘাতে বিএনপির প্রার্থী রোমানা মাহমুদ আহত ও তিনজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ২০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে তিনি দাবি করেন।

সিরাজগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘বিএনপি নেতাকর্মীরা ধানবান্ধি, কালিবাড়ী, আমলাপাড়াসহ বিভিন্ন স্থানে নৌকার পোস্টার পুড়িয়ে দিয়েছে। তারা নিজেরা নির্বাচনী মাঠে না থেকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণাতেও বাধা দিচ্ছেন’ বলে অভিযোগ করেন তিনি।

সিরাজগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ জানান, পুলিশ টহল দেয়ার সময় বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশের গাড়ির ওপর হামলা চালায়। এ সময় পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলায় বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে তিনি জানান।