নাইজেরিয়ায় ফিল্ম ফেস্টিভালে মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘রিনাব্রাউন’

এশীয় চলচ্চিত্র উৎসব (১০-১৪ ডিসেম্বর ২০১৮)-এ প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করেছে নাইজেরিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন। এতে বাংলাদেশসহ ১০টি দেশ (2nd Asian Film Festival) অংশগ্রহণ করছে। আবুজাস্থ কোরিয়ান কালচারাল সেন্টারে চলমান উৎসবে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ছবি “রিনাব্রাউন” (Rina Brown) গত ১১ ডিসেম্বর-২০১৮ প্রদর্শন করা হয় যা দর্শকনন্দিত হয়।

বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত/হাইকমিশনার, তাঁদের সহধর্মীনি, কূটনীতিক, নাইজেরিয় সরকারের প্রতিনিধি, সুশীল-সমাজ ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্য, সিনেমা-দর্শকসহ প্রবাসী বাংলাদেশীরাও উপস্থিত ছিলেন।

প্রদর্শনীর শুরুতে হাইকমিশনার মো: শামীম আহসান, এনডিসি অতিথিদের স্বাগত জানান এবং এশীয় চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করছে উল্লেখ করে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

এ প্রসঙ্গে হাইকমিশনার বাংলাদেশ সরকারসহ স্থানীয় আয়োজকদের আন্তরিক সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানান। এধরণের উৎসব বিভিন্ন দেশের মধ্যে গভীরতর সংযোগ ও বন্ধন তৈরিতে ভূমিকা রাখবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

চিত্রপরিচালক শামীম আখতারের গল্প ও পরিচালনায় বাংলাদেশ সরকারের আর্থিক অনুদানে ইমপ্রেস টেলিফ্লিমস কর্তৃক নির্মিত ’রিনাব্রাউন’র কাহিনী মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে দুজন তরুণ-তরুণীর মধ্যকার সম্পর্ককে ঘিরে আবর্তিত হয়। বরুন চান্দ, মাহফুজ রিজভী এবং প্রমা পাবোনী মূল চরিত্রে অভিনয় করেন।

অন্যান্য উল্লেখ্যযোগ্য চরিত্রে ছিলেন শম্পা রেজা, ফারহানা মিতু, আতাউর রহমান, সাবেরি আলম, মানস চৌধুরী এবং প্রবাল চৌধুরী।

চিত্রপ্রদর্শনীর পাশাপাশি বাংলাদেশ হাইকমিশন একটি স্টলের আয়োজন করে যেখানে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও পর্যটন সম্ভাবনাসহ বিভিন্ন প্রকাশনা ও পাটজাত পণ্যসহ বিভিন্নধরনের ঐতিহ্যবাহী দ্রব্যাদি ও হস্তশিল্প স্থানপায়। আগত অতিথিদের ঐতিহ্যবাহী পিঠাসহ বাংলাদেশী খাবারে আপ্যায়িত করা হয়।

চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ নাইজেরিয়াতে বাংলাদেশ সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণা সৃষ্টির প্রয়াসে হাইকমিশনএর চলমান জনকূটনীতি কার্যক্রমের অংশ।