ইসির যুগ্ম সচিবের বিরুদ্ধে সতন্ত্র প্রার্থীর লিখিত অভিযোগ

ঢাকা-১৬ আসনের এক প্রার্থী শারীরিক ভাবে আঘাতের চেষ্টার অভিযোগ এনেছেন নির্বাচন কমিশনের আইন শাখার যুগ্ম সচিব সেলিম মিয়ার বিরুদ্ধে। আজ মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে এই অভিযোগ লিখিত ভাবে দেয়া হয়।

সতন্ত্র প্রার্থী মো. সাদাকাত খান ফাক্কু তাকে শারীরিক ভাবে আঘাতের চেষ্টা করা হয় বলে সেলিম মিয়ার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে জানানো হয়েছে তিনি হেনস্তার শিকার হয়েছেন। অভিযোগে সাদাকাত খান বলেন, গত ৮ ডিসেম্বর আপিল শুনানি শেষে মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় রাত সাড়ে ৯টা থেকে সার্টিফায়েড কপির জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন তিনি। পরদিন ৯ ডিসেম্বর সোমবার কপিটি পাওয়া যাবে বলে আশ্বস্ত করা হয়। কিন্তু পরদিন রাত ১০টা নাগাদ অপেক্ষা করেও আপিলের কপি না পাওয়ায় তাকে আইন বিভাগের শরণাপন্ন হতে বলা হয়। পরে রাত প্রায় সাড়ে ১০টার দিকে আইন শাখার যুগ্ম সচিব সেলিম মিয়ার সঙ্গে দেখা করেন সাদাকাত খান। এ সময় সেলিম মিয়া তার সঙ্গে অসদাচরণ করেন বলে অভিযোগে বলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন- ‘তিনি আমাকে বলেন, আপনি কি ১০টাও ভোট পাবেন? বেশি কথা বলবেন না। একথা বলেই তিনি আমাকে আঘাত করার চেষ্টা করেন। দৌড়ে এসে আমাকে থাপ্পড় দিতে চান। পুলিশ ও র‌্যাবে ধরিয়ে দেয়ার হুমকি দেন।’ তার মতে অন্য কোনো প্রার্থীর দ্বারা প্রভাবিত হয়ে আপিলের সার্টিফায়েড কপি না দিয়ে আদালতে যাওয়ার পথ বন্ধের ষড়যন্ত্র করছিলেন যুগ্ম সচিব সেলিম মিয়া।

উল্লেখ্য, অভিযোগ দেয়ার পর মঙ্গলবার সকালে সোমবারের ব্যাকডেটে তাকে রায়ের কপি দেয়া হয় বলে জানান তিনি। এ ঘটনার প্রতিবাদে সাদাকাত খানের সমর্থকরা সকালে ইসি ভবন ঘেরাও করতে গেলে তাদের ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়নি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।