বেগম রোকেয়া দিবসে ফরিদপুরে ৫জন শ্রেষ্ঠ জয়িতাকে সন্মাননা

ফরিদপুর জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর উদ্যোগে বেগম রোকেয়া দিবস এবং নারি নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস পালন করা হয়েছে। একই সাথে “জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ” এর আওতায় ২০১৮ সালের ফরিদপুর জেলার ৫জন শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সন্মাননা দেয়া হয়। রবিবার (৯ ডিসেম্বর) সকালে ফরিদপুরে এ জয়িতা সম্মাননা দেওয়া হয়।

এ উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া বলেন, বেগম রোকেয়ার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় নিজেদের সম্পৃক্ত করার জন্য নারী সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ১৮৮০ খ্রিস্টাব্দের ৯ ডিসেম্বর রংপুরের পায়রাবন্দে এক জমিদার পরিবারে রোকেয়ার জন্ম হয়। রোকেয়া খাতুন, রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন, মিসেস আরএস হোসেন নামেও লিখতেন এবং পরিচিত ছিলেন তিনি। ঊনবিংশ শতকে নারীরা যখন অবরোধবাসিনী, সেই সময়ে নারীর পরাধীনতার বিরুদ্ধে তিনি আওয়াজ তুলেছেন।

জেলা মহিলা কর্মকর্তা মাসুদা হোসেনের সভাপতিত্বে এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, অতিঃ জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রোকসানা রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আতিকুল ইসলাম, নারি নেত্রি আসমা আক্তার মুক্তা, সমাজ সেবায় নির্বাচিত জয়িতা মিসেস হীরুন্নাহার প্রমূখ।

পরে, নির্বাচিত ৫ জন জয়িতাকে সন্মাননা স্মারক প্রদান ও উত্তরীয় পরিয়ে দেন জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া।

উল্লেখ্য, ৯ ডিসেম্বর বেগম রোকেয়া দিবস । বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন ঊনবিংশ শতাব্দীর খ্যাতিমান বাঙালি সাহিত্যিক, শিক্ষাবিদ ও সমাজ সংস্কারক। ১৯৩২ খ্রিস্টাব্দের এই দিনে মারা যান তিনি। দিনটি রোকেয়া দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি