বান্দরবান ৩০০নং আসনে প্রার্থীদের শান্তিপূর্ণ প্রচারনা শুরু

বান্দরবান ৩০০নং আসনে প্রার্থীদের শান্তিপূর্ণ নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হয়েছে। সংসদ নির্বাচনেও দেখা গেছে সম্প্রীতীর ছোয়াঁ। জাতীয় সংসদ নির্বচনে ৩০০ নং বান্দরবান আসনে আ.লীগ বিএনপির মনোনীত দুই প্রার্থীর বাসা পাশাপাশি হওয়ার পরও প্রচারনার প্রথম দিনে কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই শান্তি পূর্ণ ভাবে প্রচার কায়ক্রম শুরু করেন উভয় প্রার্থী।

সম্প্রীতির বান্দরবানে প্রার্থীদের এমন শান্তিপূর্ণ প্রচারনা দেখে খুশি সাধারন জনগণ। সোমবার সকালে প্রতীক পাওয়ার পরপরই প্রচারনায় নেমে যান আওয়ামীলী-বিএনপির প্রাথীরা। আওয়ামীলীগের প্রার্থী বীর বাহাদুর থানচি উপজেলার রেমাক্রী থেকে এবং বিএনপি প্রার্থী সাচিং প্রু জেরী পৌর এলাকা থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচারনার কার্যক্রম শুরু করেন। তবে ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থীকে প্রচারনায় দেখা যায়নি। এদিকে প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই পোষ্টারে পোষ্টারে ছেয়ে গেছে পুরো জেলা এবং শহর জুড়ে চলছে দুই প্রার্থীর মাইকিং। জনগণের মাঝে বিরাজ করছে নির্বাচনী উৎসবের আমেজ। সোমবার সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সভা কক্ষে ৩ জন প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেন রিটানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মোঃ দাউদুল ইসলাম। নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেয়েছেন বীর বাহাদুর উশৈসিং, ধানের শীষ পেয়েছেন বিএনপির সাচিং প্রু জেরী এবং হাত পাখা প্রতীক পেয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের শওকতুল ইসলাম।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রেজাউল করিম জানান, জেলার ৭টি উপজেলায় ১৭৬টি ভোটকেন্দ্র নির্ধারণ করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে ১৭৬ জন প্রিজাইডিং অফিসার ছাড়াও ৬০৫ জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার ও ১২১০ জন পোলিং অফিসার থাকবেন। একই সাথে জেলার দূর্গম ১৪টি কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম ও কর্মকর্তাদের নেয়ার জন্য নিরাপত্তা বাহিনীর হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে।

এস.কে নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি