মনোনয়ন ফিরে পেতে ২২ জনের আপিল, খোঁজখবর নিয়েছে ইমরান

নির্বাচনে বাতিল হওয়া মনোনয়ন প্রত্যাশীরা প্রার্থিতা ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেছেন। এছাড়া গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার ইসিতে এসে খোঁজখবর নিয়ে গেছেন। সোমবার সকাল থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত মনোনয়ন বাতিল হওয়া ২২ জন প্রার্থী আপিল করেন।

আবেদনকারীরা হলেন- পটুয়াখালী-৩ আসনে আওয়ামী লীগ থেকে বিএনপিতে যোগ দেয়া গোলাম মাওলা রনি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ থেকে নবাব মোহাম্মদ শামছুল হুদা, বগুড়া-৭ থেকে খোরশেদ মিলটন, খাগড়াছড়ি থেকে আব্দুল ওয়াদুদ ভূঁইয়া, ঝিনাইদহ-১ থেকে আব্দুল ওয়াহাব, ঢাকা-২০ থেকে তমিজউদ্দিন, সাতক্ষীরা-২ থেকে মোহাম্মদ আফসার আলী, কিশোরগঞ্জ-২ থেকে মো. আখতারুজ্জামান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ মো. তৈয়ব আলী, মাদারীপুর-৩ থেকে মো. আব্দুল খালেক, দিনাজপুর-২ থেকে মোকারম হোসেন, ঝিনাইদহ-২ অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট আব্দুল মজিদ, ঢাকা-১ খন্দকার আবু আশফাক, দিনাজপুর-৩ থেকে সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, জামালপুর-৪ থেকে ফরিদুল কবির তালুকদার, পটুয়াখালী-৩ থেকে মো. শাহাজাহান, পটুয়াখালী-১ থেকে মো. সুমন সন্যামাত, দিনাজপুর-১ থেকে পারভেজ হোসেন, মাদারীপুর-১ থেকে জহিরুল ইসলাম মিন্টু, সিলেট-৩ থেকে কাইয়ুম চৌধুরী, ঠাকুগাঁও-৩ থেকে এসএম খলিলুর রহমান ও জয়পুরট-১ থেকে মো. ফজলুর রহমান।

মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া ব্যক্তিরা প্রার্থিতা ফিরে পেতে আগামী ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। কমিশন আপিলের নিষ্পত্তি করবে ৮ ডিসেম্বরের মধ্যে।

হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, নির্বাচনের আগে ১৩ ডিসেম্বর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ইসির বৈঠক হবে। ওই বৈঠকে মাঠপর্যায়ের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় তাদের নির্দেশনা দেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, গতকাল রিটার্নিং কর্মকর্তারা দুই হাজার ২৭৯ জনের মনোনয়নপত্র বৈধ এবং ৭৮৬ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে তারা আজ (৩ ডিসেম্বর, সোমবার) থেকে নির্বাচন কমিশনের কাছে আপিল করতে পারছেন। ইসি তাদের আবেদনের ওপর শুনানি করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাবে।