বিজিবি’র জন্য রাশিয়া থেকে হেলিকপ্টার কেনার সিদ্ধান্ত

রাশিয়া থেকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) জন্য দুটি হেলিকপ্টার কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। গতকাল বুধবার সচিবালয়ে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক বিষয়–সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ বিষয়ে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়।

গতকাল সচিবালয়ে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয়–সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেই বৈঠকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) জন্য রাশিয়া থেকে দুটি হেলিকপ্টার কেনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম সাংবাদিকদের জানান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপস্থাপন করা এ প্রস্তাব অনুমোদন পেয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, দেশের দুর্গম অঞ্চলে জরুরি ভিত্তিতে সেনা মোতায়েন, পণ্য পরিবহন, উদ্ধার তৎপরতা, মুমূর্ষু রোগী যাতায়াত ও দুর্গম পার্বত্য এলাকায় পর্যবেক্ষণ অথবা নজরদারি বাড়ানোর জন্য হেলিকপ্টার দুটি কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মোস্তাফিজুর রহমান জানান, রাশিয়ার কোম্পানি ‘জেএসসি রাশিয়া’ থেকে সরকারি (জি-টু-জি) পর্যায়ে হেলিকপ্টার দুটি কেনা হবে। হেলিকপ্টার দুটি চালানোর কারিগরি সহযোগিতাও দেবে ‘জেএসসি রাশিয়া’।

হেলিকপ্টার দুটি কিনতে ৩৫৫ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয় হবে। এটি এমআই ১৭১ই (সিভিল ভার্সন) হেলিকপ্টার হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হেলিকপ্টার দুটির গতি হবে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২৫০ কিলোমিটার, ফ্লাইট সার্ভিস সিলিং হবে ৬০০০ মিটার, আর ওজন হবে প্রতিটির ১৩ হাজার কেজি। এসব হেলিকপ্টারে একজন স্টুয়ার্ডসহ ২৬ জন যাত্রী পরিবহন ও পণ্য পরিবহনের সুবিধা আছে।

এছাড়াও প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়েছে, যে হেলিকপ্টার (এমআই সিরিজ) কেনা হচ্ছে, সেগুলো দুর্ঘটনায় পড়ার হার কম এবং বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর পাইলটেরা এর সঙ্গে বেশ পরিচিত।