জেনে নিন কীভাবে কাজ করবে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’

আজ মঙ্গলবার তথ্য মন্ত্রণালয়ে ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’-এর কার্যক্রম নির্ধারণ ও সহযোগিতা বিষয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়ানো গুজব শনাক্ত করতে গঠিত সেল কীভাবে কাজ করবে, তার ধরণ ঠিক করা হয়।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়ানো গুজব শনাক্ত করতে সম্প্রতি তথ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে নয় সদস্যের ‘গুজব শনাক্তকরণ সেল’ গঠন করা হয়। আর আজকের সভায় এই সেল কীভাবে কাজ করবে তা জানানো হয়। এই সেলকে গোয়েন্দা সংস্থা, পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের একসেস টু ইনফরমেশনসহ (এটুআই) সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো অনলাইনে ছড়ানো বিতর্কিত তথ্য জানাবে। তারপর এই সেল স্থানীয় পর্যায়ে ওসিসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তা সরেজমিনে পরিদর্শন করে তথ্য গুজব কি না, তা শনাক্ত করবে। যদি গুজব হয়, তাহলে মূলধারার গণমাধ্যমকে তা দ্রুত জানিয়ে দেওয়া হবে। এর পাশাপাশি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থাকে (বিটিআরসি) জানিয়ে দেওয়া হবে।

আজকের সভায় সভাপতি তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ছাড়াও পুলিশ, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা, বিটিআরসিসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এসময়তারানা হালিম সাংবাদিকদের জানান- তাঁরা শুধু গুজব শনাক্ত করে তা জনগণকে জানাতে চান। তিনি বলেন, সংশ্লিষ্ট সবাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে এই কাজ করবেন। গুরুত্ব বিবেচনায় দৈনিক বা সপ্তাহে এই গুজব শনাক্ত করে জানানো হবে।

এছাড়াও কাজটি সার্বিক তত্ত্বাবধানের জন্য আরেকটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠনেরও সিদ্ধান্ত হয়েছে।