কোয়ানটিটি নয়, কোয়ালিটি বাড়াতে হবেঃ বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি

গোঠা বান্দরবান আমার পরিবার। সবার দেখভাল করা আমার দায়িত্ব ও কর্তব্য। সবার কল্যানের জন্য কাজ করতে সরকার আমাকে দায়িত্ব দিয়েছে। একযুগ পূর্বের নাইক্ষ্যংছড়ি আর বর্তমানের নাইক্ষ্যংছড়ি আকাশ-পাতালের ব্যবধান। জননেত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য অঞ্চলের দায়িত্ব নিজ হাতে নেওয়ার পর থেকেই পুরো জেলায় আমূল পরিবর্তণ ঘটেছে। জেলার প্রত্যেকটা উপজেলায় কলেজ হয়েছে।

সম্প্রতি তিনটি কলেজ সরকারীকরণও হয়েছে। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য অঞ্চলে বিজ্ঞান-প্রযুক্তি খাতে বেশি মনোযোগ দিয়েছেন। বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশেসিং এমপি নাইক্ষ্যংছড়িতে বিভিন্ন উন্নয়নকর্মকান্ড উদ্বোধন শেষে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কলেজ কর্তৃপক্ষকে উদ্দেশ্য করে বলেন, কোয়ানটিটি নয়, কোয়ালিটি বাড়াতে হবে। কিভাবে কোয়ালিটি বাড়াতে হবে সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। “বাসায় গিয়ে পড়ে নিও” শব্দটা বাদ দেন। কারণ গ্রামের অবহেলিত শিক্ষার্থীদের পিতা-মাতা শিক্ষিত নাও হতে পারেন। তাই শিক্ষার্থীদের ক্লাসেই পড়া আদায় করতে নাইক্ষ্যংছড়ি হাজ¦ী এম এ কালাম সরকারী ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের প্রতি অনুরোধ জানান।

তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বপরিমন্ডলে ব্যাপক প্রশংসিত। প্রধানমন্ত্রী ২৪ ঘন্টার মধ্য ১৮ ঘন্টাই দেশের সেবার কাজে নিয়োজিত থাকেন। তার নিপুন দক্ষতায় বাংলাদেশ এখন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ভূ-গ্রহে। বর্তমানে দেশে শিক্ষার হার বেড়েছে, মাতৃ ও শিশু মৃত্যুহার কমেছে। দেশ এখন উন্নয়নশীল দেশের কাতারে। বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই। শেখ হাসিনা শেষ, বাংলাদেশও শেষ।

নাইক্ষ্যংছড়ি হাজী এম এ কালাম সরকারী ডিগ্রী কলেজ অধ্যক্ষ ও আ ম রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) আবু ছিদ্দিক হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) কামরুজ্জামান, আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য কাজল কান্তি দাশ, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া আফরিন কচি, জেলা পরিষদ সদস্য ক্যানেওয়ান চাক, থিংথিং মা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী প্রমুখ।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদ সদস্য লক্ষীপদ দাশ, ক্যাসাপ্রু মার্মা, মোজাম্মেল হক বাহাদুর, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ ইমরান মেম্বার, দৌছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান হাবিব উল্লাহ, সোনাইছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান বাহাইন মার্মা, ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ, এমপি প্রতিনিধি খাইরুল বশর, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রাজা মিয়া প্রমুখ।

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি নাইক্ষ্যংছড়িতে সকাল ১০ টায় পৌঁছানোর পর বিশ্বপ্রমাণ্য চিত্র, নাইক্ষ্যংছড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন, বৌদ্ধ বিহার ভিত্তি প্রস্থর, নাইক্ষ্যংছড়ি সরকারী ডিগ্রী কলেজ শহীদ মিনার, নতুন ভবন, কলেজের একাডেমীক ভবন ও অডিটরিয়াম নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপনসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।

 

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি