‘রোজ গার্ডেনকে ইতিহাস ঐতিহ্যের জাদুঘর হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হবে’

রোববার রাতে গণভবনে রোজ গার্ডেনের দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রোজ গার্ডেনকে ইতিহাস ঐতিহ্যের জাদুঘর হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হবে। পুরাতন ঢাকার ঐতিহাসিক স্মৃতি চিহ্নসমূহ এখানে স্থান পাবে। এ ধরনের ঐতিহাসিক স্থাপনাকে নষ্ট করা মোটেই ঠিক নয়।

তিনি আরও বলেন, রোজ গার্ডেন ভবনটির একটি ঐতিহাসিক মূল্য রয়েছে, কারণ এ ভবন থেকে ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন উপমহাদেশের অন্যতম পুরাতন রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের জন্ম হয়।

অনুষ্ঠানে দলের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার স্মৃতি বিজড়িত পুরান ঢাকার ঋষিকেশ দাস রোডের ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেন নামের পুরাকীর্তি বাড়িটি বর্তমান মালিক লায়লা রকীব ও তার সন্তানদের কাছ থেকে কিনে নেয় সরকার। গণভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে লায়লা রকীব ও তার সন্তানদের কাছ থেকে বাড়িটি কেনার রেজিস্ট্রেশন দলিল গ্রহণ করেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার এর আগে নগর ভবনে একটি জাদুঘর করেছিল কিন্তু সেখানে অফিসিয়াল কাজের চাপ বেশি থাকায় জাদুঘরের পরিবেশ বজায় রাখা যায় না। এরই পরিপ্রেক্ষিতে নগর ভবনের জাদুঘর রোজ গার্ডেনে স্থানান্তর করা হবে এবং সেখানে পুরাতন ঢাকার ঐতিহাসিক নিদের্শনসমূহ প্রদর্শন করা হবে। রোজ গার্ডেনের মূল কাঠামো পরিবর্তন না করে এর প্রয়োজনীয় সংস্কার করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন তিনি।

গত ৮ আগস্ট সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী দল আওয়ামী লীগের জন্ম ও অনেক গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক সভার সাক্ষী রোজ গার্ডেন কিনে নেয়ার প্রস্তাবে অনুমোদন দেয়।

সে অনুযায়ী, সরকারের গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় রোজ গার্ডেনের বর্তমান মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে ভবনসহ সম্পত্তির মূল্য ৩৩১ কোটি ৭০ লাখ টাকা নির্ধারণ করে।

এর পরিপ্রক্ষিতে রোববার প্রধানমন্ত্রী রোজ গার্ডেন ভবনের দলিল গ্রহণ করেন এবং বিনিময়ে অর্থের চেক ও রাজধানীর গুলশানে ২০ কাঠা জমিসহ সেখানে নির্মিত একতলা ভবন রোজ গার্ডেন মালিক পক্ষের কাছে বিক্রয় সংক্রান্ত দলিল হস্তান্তর করেন।

ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেনে ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন বিকেলে শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী সম্মেলনে পূর্বপাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ নামে দেশের বৃহত্তম দলটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৩১ সালে ঋষিকেশ দাস নামের এক ধনাঢ্য ব্যবসায়ী পুরান ঢাকায় ২২ বিঘা জমির ওপর যে বাগান বাড়ি তৈরি করেন তারই নাম হয় ‘রোজ গার্ডেন’।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেন বাড়িটিকে রাষ্ট্রীয় সম্পদে পরিণত করে সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে।