ঝিনাইদহের জিয়ালা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার জিয়ালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেজাউল ইসলামের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ, ক্ষমতার অপব্যবহারসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে এলাকার অর্ধশত ব্যক্তি বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, জিয়ালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেজাউল ইসলামের বাড়ি একই গ্রামে। এলাকায় সে প্রভাবশালী হওয়ায় বিদ্যালয়ের ফান্ড থেকে অর্থ আত্মসাৎ করছেন। নিজে বিদ্যালয়ের নামে রশিদ ছাপিয়ে টাকা আদায় করে আত্মসাৎ করছেন। এছাড়াও এলাকার কয়েকজন গন্যমান্য ব্যক্তি বিদ্যালয়ে জমি দান করলেও নিজের পছন্দ অনুযায়ী পার্শবর্তী গ্রাম থেকে যোগসাজস করে বিদ্যালয়ের সভাপতি নির্বাচিত করেছেন।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, বিদ্যালয়ের পাশে কিছু খাশ জমিতে কয়েকজন দোকান দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন। প্রধান শিক্ষক রেজাউল ইসলাম তাদের কাছ থেকে টাকা আদায় করেন। টাকা না দিয়ে উচ্ছেদ করার হুমকি দিচ্ছেন। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করার অভিযোগও আছে। এলাকার কোন অভিভাবক কোন বিষয়ে তার সাথে কথা বলতে গেলে তাদের সাথে খারাপ আচরণ করেন। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক রেজাউল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা

অফিসার মুশতাক আহম্মেদ বলেন, এলাবাসারী নিকট থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দোষি প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মোঃ জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি