সিরাজদিখানে বিদেশী ঔষধসহ আটক ৩

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বালুচর ইউনিয়নের চান্দের চর গ্রাম থেকে গতকাল সোমবার দুপুর ১২ টার দিকে ২৯০ পিছ বিদেশী ঔষধ সহ তিনজন কে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় জনতা। আটককৃতরা হচ্ছে কেরানীগঞ্জ থানার আগানগর গ্রামের মৃত শোবল মিয়ার ছেলে মো. পলাশ (৩৭) এবং নোয়াখালীর শ্যামভাগ থানার তোফায়েল আহামেদের দুই ছেলে হুমায়ূন কবির (৩২) ও মো. জাহাঙ্গীর (২৬)।

আটক মো. পলাশ জানান, তারা বিগত তিন বছর যাবত চান্দের চর গ্রামের কুয়েত প্রবাসী মোঃ ইয়াসিনের স্ত্রী মোসাম্মদ ছালেহা বেগমের (৩৫) এর নিকট থেকে এই ধরনের ঔষধ ক্রয়-বিক্রয়ের ব্যবসা করছিল।

উপজেলার বালুচর ইউনিয়নের চান্দের চর গ্রামের মো. ইয়াসিনের স্ত্রী ছালেহা বেগমের বোন কুয়েতে একটা সরকারি হাসপাতালে চাকুরী করেন। তিনি প্রতি মাসে সেখান থেকে এই ধরনের মেডিসিন পার্সেল করে বাড়িতে পাঠান ছালেহার কাছে এবং ছালেহা সেগুলো এইভাবে বিক্রি করেন। স্থানীয়রা টের পেয়ে গতকাল হাতেনাতে ধরে তাদের সিরাজদিখান থানা পুলিশে দেন।

সিরাজদিখান থানার ওসি ফরিদউদ্দিন জানান, ভিয়ালিবেক্স নামের ঔষদসহ তাদের আটক করা হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এটি মূমূর্ষ রোগীর শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এখনও কোন মামলা হয়নি। তবে ওনাড়া যদি বৈধ কোন কাগজপত্র দেখাতে পারে তবে তাদের ছেড়ে দেয়া হবে।

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি