পারফিউমের শোরুম থেকে গ্রেফতার হলো সন্ন্যাসি সোফিয়ার স্বামী

পারফিউমের এক শোরুম থেকে গ্রেফতার করা হলো সন্ন্যাসি সোফিয়ার স্বামী ভ্লাডকে। চুরি এবং সোফিয়ার ওপর মানসিক অত্যাচারের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অবশেষে আজ এক পারফিউমের শোরুম থেকে ভ্লাডকে গ্রেফতার করল পুলিশ। কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সোফিয়া জানিয়ে দিয়েছিলেন তার স্বামী একজন প্রতারক এবং মিথ্যুক। এরপর সাংবাদিকদের সাক্ষাৎকারে জানান যে, স্বামীকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছেন তিনি। খবরটি ছড়িয়ে পড়তেই এক নারী তাকে ম্যাসেজ করেন এং তিনিও জানান যে তার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন ভ্লাড। ম্যাসেজের স্ক্রিনসট সাইবারবাসীদের কাছে শেয়ার করেন সোফিয়া।

এমনকি এক সাক্ষাৎকারে এই অভিনেত্রী জানান, ওই নারীর সঙ্গে দু’বছর আগে লন্ডনে সাক্ষাৎ হয় ভ্লাডের। সেখান থেকই দু’জনের মধ্যে সম্পর্কের শুরু হয়। এমনকি তারা একসঙ্গে বেশকিছু মাস লন্ডনেও থাকে। এরপর হঠাৎ তার অনুপস্থিতিতে ভ্লাড বাড়ি থেকে একাধিক দামী জিনিস চুরি করে নিয়ে পালায়। ঘটনাটির পর ফোন নম্বর পাল্টে ফেলে ভ্লাড এবং সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ব্লক করে তাকে। এই পুরো বিষয়টি আমায় ওই নারী ম্যাসেজ করে জানায় যেটা আমি শেয়ার করি। ভ্লাদের যে চুরি স্বভাবটি আছে সেটা আগে থেকেই জানতে পেরেছিলেন সোফিয়া। তার পার্স থেকে লুকিয়ে টাকাও সরাতো তার স্বামী। এরপর বেশকিছু দিন আগে তার বিজনেসের কাগজপত্র হাতাতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ে ভ্লাড।

প্রসঙ্গত, কয়েকমাস আগেই এই ভ্লাডের প্রেমে পাগল ছিলেন সোফিয়া। তাদের রোম্যান্সে ছয়লাপ ছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু বিয়ের বছর ঘোরার আগেই, স্বামীকে চোর বদনামসহ তার ওপর মানসিক অত্যাচারের অভিযোগ এনে এবার জেলে পাঠালেন ভ্লাডকে।