ঝিনাইদহে নদীতে অবৈধভাবে দেওয়া বাঁধ অপসারণ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নদীতে অবৈধভাবে দেওয়া বাঁধ অপসারণ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত ১ সপ্তাহে কয়েকদফা অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার কালিচরনপুর, দোগাছি, ঘোড়শাল, ফুরসন্দি, গান্না ইউনিয়নের নবগঙ্গা, ফটকি, রাজারামের খাল, কুঠি দুর্গাপুর ও কালুহাটি খালসহ বিভিন্ন নদী ও খালের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলাম।

এসময় নদী ও খালের মাঝে অবৈধ বাঁধ দখলদারদের বাঁশ খুটি পুড়িয়ে গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এতে করে এলাকায় হাজার হাজার একর রোপা আমনের ফসলি জমি পানিতে তলিয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা পেল।

এলাকায় ফিরে এসেছে স্বস্থি। বর্ষার শুরুতেই এক শ্রেনির ভুমি দস্যুরা নিজের পেশি শক্তির জোরে এসব সরকারি জায়গা অবৈধ ভাবে দখল করে মৎস্য শিকার করতো। বাধের কারনে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলাম জানান, বর্ষার পুরা মৌসুমে অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। অভিযানে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পুলিশ সদস্য ও মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি