জাককানইবি’তে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে শোকাচ্ছন্ন ১৫ই আগষ্ট

যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী পালিত হয়েছে ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে।

আজ ১৫ আগস্ট (বুধবার) সকাল ১০ টায় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে  জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান।

এরপর পরে একে একে ট্রেজারার প্রফেসর জালাল উদ্দিন,অনুষদীয় ডিন, বিভাগীয় প্রধান, হলের প্রভোস্টগণ, প্রক্টর, শিক্ষক সমিতি, কর্মকর্তা পরিষদসহ কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিক্ষার্থী, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ, ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

বেলা ১১ টায় গাহি সাম্যের গান মঞ্চে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ব বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক বীরমুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড. গাজী সালেহ উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার প্রফেসর জালাল উদ্দিন,রেজিস্টার(ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড.হুমায়ুন কবির ও আলোচনা সভায় আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সুব্রত কুমার দে, কলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোশাররত শবনব, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম, শিক্ষক সমিতির সভাপতি তপন কুমার এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবু,সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব।

আলোচকবৃন্দ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জীবন ও কর্ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয় এবং বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

নাইমূল হাসান রাহাত, জাককানইবি প্রতিনিধি