দেশে আনা হয়েছে দেশবরেণ্য সাংবাদিক গোলাম সারওয়ারের মরদেহ

গতকাল মঙ্গলবার রাত ১০টা ৫০ মিনিটের দিকে একুশে পদকপ্রাপ্ত দেশবরেণ্য সাংবাদিক ও সমকাল পত্রিকার সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের মরদেহ সিঙ্গাপুর থেকে দেশে পৌঁছেছে। সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিশিষ্ট এই সাংবাদিকের মরদেহ বহন করা হয়।

দেশে আনা হয়েছে দেশবরেণ্য সাংবাদিক ও সমকাল পত্রিকার সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের মরদেহ। গত সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ২৫ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে মারা যান গোলাম সারওয়ার। মৃতুকালে তার বয়স ছিল ৭৫ বছর। হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গোলাম সারওয়ারের মরদেহ পৌঁছানোর পর বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে পরিবারের সদস্য ও সমকালের সহকর্মীরা গোলাম সারওয়ারের মরদেহ গ্রহণ করেন। সমকালের নগর সম্পাদক শাহেদ চৌধুরী জানান, বিমানবন্দর থেকে গোলাম সারওয়ারের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় তাঁর উত্তরার বাসভবনে। তারপর তাঁর মরদেহ রাখা হয় বারডেম হাসপাতালের হিমঘরে। সমকাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আজ বুধবার গোলাম সারওয়ারের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে তাঁর জন্মস্থান বরিশালের বানারীপাড়ায়। সেখানে শ্রদ্ধা ও জানাজা শেষে তাঁর মরদেহ আবার ঢাকায় আনা হবে।

শাহেদ চৌধুরী জানান, আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল নয়টায় গোলাম সারওয়ারের মরদেহ নেওয়া হবে তাঁর প্রিয় কর্মস্থল সমকাল কার্যালয়ে। সেখানে সহকর্মীদের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ব্যবস্থাপনায় বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সমকাল সম্পাদকের মরদেহ সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধার জন্য রাখা হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। শ্রদ্ধা জানানোর পর তাঁর মরদেহ নেওয়া হবে জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে। সংবাদকর্মীরা সেখানে গোলাম সারওয়ারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। সেখানে বাদ জোহর তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বাদ আসর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন গোলাম সারওয়ার।

গোলাম সারওয়ারের মৃত্যুতে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে সমকাল কার্যালয় এবং বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটে (পিআইবি) শোকবই খোলা হয়েছে। গতকাল সকালে এই শোকবই খোলা হয়। আগামীকাল পর্যন্ত শোকবই খোলা থাকবে।