বিতর্কিত দক্ষিণ চীন সাগরে বিমানবন্দর নির্মাণের অভিযোগ

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন দাবি করেছে, বিতর্কিত দক্ষিণ চীন সাগরে বিমানবন্দর নির্মাণ করছে বেইজিং। সেখানে সামরিক বিমানের সহজ ওঠানামার জন্য সকল ব্যবস্থাই রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে দক্ষিণ চীন সাগরে সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে চীন। এমনটাই অভিযোগ মার্কিনদের। কিন্তু এবার বেরিয়ে এলো আরও অবাক করা চাঞ্চল্যকর এক তথ্য। আর তা হল দক্ষিণ চীন সাগরে বিমানবন্দর নির্মাণ করছে বেইজিং। এমনটাই দাবি করছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন। প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন নৌবাহিনীর একটি বিমান শুক্রবার দক্ষিণ চীন সাগরের ওই এলাকার প্রায় সাড়ে ১৬ হাজার ফুট ওপর দিয়ে উড়ে যায়। ওই বিমানে সিএনএন’র সাংবাদিকও ছিলেন। তারা দেখেছেন, পাঁচতলা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে কৃত্রিম দ্বীপে। বড় রানওয়ের পাশাপাশি রাডার, পাওয়ার প্লান্ট স্থাপন করা হয়েছে। অর্থাৎ সেখানে সামরিক বিমানের সহজ ওঠানামার জন্য সকল ব্যবস্থাই রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে, বিমানটি উড়ে যাওয়ার সময় চীনা সামরিক বাহিনী অন্তত ছয়বার সতর্ক করেছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এ সময় মার্কিন বিমানকে সতর্ক করে বলা হয়, ‘কোনো ভুল বোঝাবুঝির আগেই এলাকা ত্যাগ কর।’ এ ব্যাপারে মার্কিন বিমানটির নেতৃত্বে থাকা লেফটেন্যান্ট লরেন কালেন বলেন, সাগরের মাঝখানে বিমানবন্দর দেখে অবাক হয়েছি।

তবে চীনের অভিযোগ সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দক্ষিণ চীন সাগরে সামরিক উপস্থিতি বাড়ানো খুবই জরুরি। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা এই অঞ্চলে উত্তেজনা বাড়াচ্ছে।