দিনাজপুরের বীরগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলা একজন নিহত, সন্ত্রাসীকে পুড়িয়ে হত্যা

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে সন্ত্রাসীর হামলায় একজন নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত সন্দেহে একজনকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে এলাকাবাসী। এই ঘটনায় দফায় দফায় ঠাকুরগাঁও-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে এলাকাবাসী। ঘটনাটি নিয়ে বর্তমানে এলাকায় বেশ উত্তেজনা বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, আজ বৃহস্পতিবার ভোরে ফজরের নামাজ পড়ে ফেরার পথে বীরগঞ্জ উপজেলার জগদল ডাঙ্গাপাড়া এলাকার মৃত: কাশেম আলীর ছেলে সুরুজ মিয়া, এলাকার একটি মুরগী ফার্মের নৈশ্য প্রহরী শহীদ ও ৩ বছরের ছেলে একরামুলকে কুপিয়ে পালিয়ে যায় একই এলাকার তারামিয়ার ছেলে রবিউল ইসলাম। এতে ঘটনাস্থলেই সুরুজ মিয়া মারা যায়। এই ঘটনার পর সকাল ৬ টা থেকে ঠাকুরগাঁও-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে এলাকাবাসী। পরে সকাল পৌনে ৮ টার দিকে এলাকাবাসী ঘাতক রবিউল ইসলামকে কাহারোল উপজেলার তের মাইল গড়েয়া নামক থেকে ধরে নিয়ে এসে ঘটনাস্থলে পুড়িয়ে হত্যা করে।

এতে করে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। সকাল থেকেই দফায় দফায় মহাসড়ক অবরোধ করে দু’পক্ষের লোকজন। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে ও সকাল ১০ টা থেকে যানচলাচল শুরু হয়।

এলাকাবাসী আরো জানায়, রবিউল ইসলাম এলাকার সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। গত প্রায় ২ মাস আগে সুরুজ মিয়ার ভাতিজা বশিরকে কুপিয়ে হত্যা করে। গত সোমবারও একজনকে এলোপাথারি কোপায় সে।

ফখরুল হাসান পলাশ, দিনাজপুর প্রতিনিধি