আক্রমণের শিকার ফটো সাংবাদিকরা

আজ রোববার দুপুরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্র আন্দোলনে পুলিশ ও ছাত্রলীগের হামলার ছবি তুলতে গেলে সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠনটির আক্রমণের শিকার হয় ফটো সাংবাদিক। আহত ফটো সাংবাদিকদের মধ্যে তিন জনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

দুপুর ২টার দিকে সায়েন্স ল্যাব এলাকায় ছাত্র বিক্ষোভের ছবি তোলার সময় লোহার রড ও লাঠি নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা প্রায় অর্ধশত সাংবাদিকের ওপর চড়াও হয়। পুলিশ ও ছাত্রলীগের হামলার ছবি তুলতে গিয়ে গুরুতর আহত হন অন্তত পাঁচ জন ফটো সাংবাদিক। এছাড়াও আরও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়। আহত ফটো সাংবাদিকদের মধ্যে তিন জনের পরিচয় নিশ্চিত করা যায়। এরা হলেন এসোসিয়েটেড প্রেস (এপি)-এর এএম আহাদ, দৈনিক বণিক বার্তার পলাশ ও ফ্রিলেন্স ফটোজার্নালিস্ট রাহাত করিম। আহত অন্যান্যদের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শুধু ফটো সাংবাদিকই নয় যারাই ছাত্রলীগের হামলার ছবি তোলার চেষ্টা করেছেন তাদেরকেই মারধর করা হয়েছে। এমনকি হাতে মোবাইল ফোন থাকলেও অনেককেই হুমকি দিতে দেখা যায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের। জরুরি প্রয়োজনে এসময় অনেককেই এটিএম বুথের ভেতরে ঢুকে ফোন করতে দেখা গেছে।

আক্রমণের শিকার ফটো সাংবাদিকরা

এসব ঘটনা আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সামনে ঘটলেও ছাত্রলীগকে নিরস্ত করা হয়নি। যারা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করে ছিল তাদের হাতে কোন অস্র না থাকলেও তাদের উপর হামলা চালানো হয় বলে আন্দোলনকারীদের অভিযোগ।