‘দাবী মেনে নেওয়ার পর আন্দোলনের কোনও যুক্তিকতা নেই’

রাজধানীর বিমান বন্দর সড়কের কুর্মিটোলা এলাকায় জাবালে নূর বাসের চাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিলে মৃত্যু বরন করে আরও তিন শিক্ষার্থী। নিরাপদ সড়ক ও ঘাতক চালকদের দ্রুত বিচার ও ফাঁসির দাবিতে অবরোধ করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলন বন্ধ করে ঘরে ফিরে যেতে অনুরোধ করেন সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিমানবন্দরে বাসচাপায় দুই স্কুলশিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর নৌ মন্ত্রীর হাসির কারণে সোমবার সড়ক অবরোধ করে শাজাহান খানের পদত্যাগের চায় শিক্ষার্থীরা। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দাবী মেনে নেওয়ার পর আন্দোলনের কোনও যুক্তিকতা নেই। পরবর্তী সংসদ অধিবেশনে এ প্রস্তাব উপস্থাপন করা হবে। নৌ মন্ত্রীর পক্ষ থেকে আমি তাদের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি।

উল্লেখ্য, গতকাল রোববার (২৯ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে এমইএস বাস স্ট্যান্ডে জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। একই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১১/১৫ জন শিক্ষার্থী।

চাকার নিচে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যাওয়া দুই শিক্ষার্থী হলেন- শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আব্দুল করিম রাজিব।