র‌্যাডিসন ব্লু হোটেলের সড়কে শিক্ষার্থী নিহত, সড়ক অবরোধে যানজটের সৃষ্টি

আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্টের এমইএস ফ্লাইওভারের সামনে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের বিমানবন্দর সড়কে বাসের ধাক্কায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত হয়েছেন কয়েকজন শিক্ষার্থী। ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ওই এলাকায় যানবাহন ভাঙচুর করায় প্রধান দুই সড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে আবদুল্লাহপুর রুটের জাবালে নুর নামের একটি বাসের চাপায় রাজধানীর শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজের দুই শিক্ষার্থী ঘটনাস্থলে নিহত হন। কয়েকজন শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হন। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ক্যান্টনমেন্ট ফ্লাইওভার থেকে নেমে আসা মোহাম্মদপুর থেকে আবদুল্লাহপুরগামী দুটি যাত্রীবাহী  বাসের মধ্যে প্রতিযোগিতা শুরু হয়। ফলে চালক হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারায়। এ সময় সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর উঠে যায় জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস। এতে ঘটনাস্থলেই দুই শিক্ষার্থী মারা যান। নিহতরা হলেন রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আব্দুল করিম ও একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম। গুরুতর আহত অবস্থায় কয়েক শিক্ষার্থীকে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহান হক এই দুর্ঘটনার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। ডিএমপির ট্রাফিক উত্তরের বিমানবন্দর জোনের সহকারি কমিশনার শচিন মৌলিক জানান, জাবালে নূর(ঢাকা মেট্রো ব-১১৯২৯৭) পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কায় রেডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন হোটেলের সামনের সড়কের ঘটনাস্থলে দুই জন মারা গেছে ও ৮/১০ জনের মতো আহতের খবর পেয়েছি। বিক্ষুব্ধ জনতা বাসটি ভাঙচুর করেছে। আমি মন্ত্রণালয়ে ছিলাম। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন ট্রাফিক উত্তরের উপ-কমিশনার প্রবীর কুমার দাসসহ ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা।

দুর্ঘটনার পর ওই এলাকায় সড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। সড়কে প্রচণ্ড যানজট সৃষ্টি হয়েছে। একটি বাসে আগুনও ধরিয়ে দেয়া হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।