খোয়া যাওয়া কয়লা তদন্তে এমডি সহ ৪ কর্মকর্তার বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়ায় খোয়া যাওয়া কয়লার ব্যাপারে পূর্ণ তদন্ত কার্যক্রমের প্রয়োজনে প্রতিষ্ঠানটির এমডি হাবিব খুরশিদ আহমেদ সহ ৪ কর্মকর্তাকে বিদেশ যেতে নিষেধ করা হয়েছে। গতকাল দুদক উপ-পরিচালক শামছুল আলম ইমিগ্রেশন পুলিশকে এক চিঠি প্রেরণের মাধ্যমে এই নিষেধাজ্ঞা নিশিত করেন।

বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ কয়লাখনি দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়ায়। আর সেই খনির কয়লা উধাও হওয়ার ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হাবিব খুরশিদ আহমেদ সহ ৪ কর্মকর্তাকে বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক শামছুল আলম ইমিগ্রেশন পুলিশকে লেখা এক চিঠির মাধ্যমে একথা জানান। হাবিব খুরশিদ আহমেদ সহ অন্য তিন কর্মকর্তা হলেন বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির জিএম (প্রশাসন) আবুল কাশেম প্রধানিয়া, জিএম (কোল মাইনিং) আবু তাহের মোহাম্মদ নুরুজ্জামান চৌধুরী, ডিজিএম (স্টোর) একে এম খাদেমুল ইসলাম। দুদকের পরিচালক (গণ সংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য নিষেধাজ্ঞা জারির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ১ লাখ ৪২ হাজার টনের বিপুল পরিমাণ কয়লা হঠাৎ গায়েব হয়ে গিয়েছে। আর কয়লা সংকটে বন্ধ হয়ে পড়েছে বড়পুকুরিয়া কয়লাচালিত তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র। এতে রংপুরের বিভিন্ন জেলায় বিদ্যুৎ সংকটে দুর্ভোগে পড়েছেন সেখানকার মানুষ। কিন্তু এত কয়লা কোথায় গায়েব হয়ে গিয়েছে সে সম্পর্কে কেউই কিছু জানেন না।