দিনাজপুরে ভুমিদস্যু কর্তৃক নিরীহ লোকজনের সম্পত্তি জবর দখল

দিনাজপুরের বিরলে ভুমিদস্যু ও দুস্কৃতিকারী কর্তৃক নিরীহ লোকজনের প্রায় ৬ একর জমি জবর দখল করার অভিযোগ উঠেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর আদেশকেও কর্ণপাত না করে তারা ক্ষমতার অপব্যবহার করে এসব করছেন।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে এই অভিযোগ করেন বিরল উপজেলার মঙ্গলপুর ইউনিয়নের হরিশচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত: খড়র্গ মোহন বর্মনের ছেলে বিষ্ণু পদ রায়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ৭০ বছর যাবত তারা গোবিন্দপুর মেহেরবাগী মৌজার ৫ একর ৯৩ শতক জমি ভোগদখল করে আসছেন। কিন্তু কিছুদিন পূর্বে হরিপদ, থিনেশ, ফাল্টু, নরেন, সুরেন, কুমোড়, খিরতসহ বেশ কিছু ভুমিদস্যু ও দুস্কৃতিকারী তাদের জমি জবর দখল করে অবৈধভাবে ঘরবাড়ী নির্মাণ করে ও বেড়া দেয়। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর নজরে আসলে তাদের নির্দেশে বেআইনীভাবে জবর দখল করা সম্পত্তির ঘরবাড়ীসহ বেড়া ভাংচুর করার আদেশ দেন। পরে গ্রামবাসীর সহায়তায় ভাংচুর করার সময় বিরল থানার ওসি কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন এবং উভয়পক্ষকে সম্পত্তির শালিস মিমাংসা না হওয়া পর্যন্ত সম্পত্তির স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে বলেন। কিন্তু এ বিষয়টি কর্ণপাত না করে পুনরায় সম্পত্তির ব্যবহার শুরু করেন এবং টিউবওয়েল বসায়।

বিষয়টি অতিদ্রুত নিষ্পত্তি করাসহ বাপ-দাদার সম্পত্তি ফিরে পেতে প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছেন তারা। সংবাদ সম্মেলনে সম্পত্তির ওয়ারিশ বিজয় রায়, মানিক রায়, পূর্ণ চন্দ্র রায়, সুব্রতসহ বিভিন্নজন উপস্থিত ছিলেন।

ফখরুল হাসান পলাশ, দিনাজপুর প্রতিনিধি