বিয়ে করতে গিয়ে জেলখানায় বর!

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় বাল্যবিয়ের দায়ে বর হাফিজুর রহমানকে (১৯) ১৫ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (০৫ জুন) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাগফুরুল হাসান আব্বাসীর ভ্রাম্যমাণ আদালত এ দণ্ড দেয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত হাফিজুর উপজেলার জয়মনিরহাট ইউনিয়নের ছোটখাটামারী গ্রামের তাজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি জয়মনির হাট টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছোটখাটামারী গ্রামের তাজ উদ্দিনের ছেলে হাফিজুরের সঙ্গে সামাদ নগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী দেওয়ানের খামার গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে কেয়ামনির প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এর জের ধরে ১৫ মে ছেলে ও মেয়ে পালিয়ে অবিভাবকদের অগোচরে নোটারি পাবলিকে এফিডেভিটের মাধ্যমে গোপনে বিয়ে করেন। এফিডেভিটের পর ২০ দিন অতিবাহিত হলেও মেয়েকে বাড়িতে না ওঠানোয় সোমবার (০৪ জুন) কেয়ামনি ছেলের বাড়িতে চলে যান।

এ ব্যাপারে মেয়ের বাবা আবুল কাশেম ভূরুঙ্গামারী থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ ওইদিন রাতেই উভয়কে আটক করে থানায় নিয়ে যান।

পরে মঙ্গলবার (০৫ জুন) দুপুরে তাদের ইউএনও’র কাছে হাজির করা হলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে হাফিজুরকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড ও কেয়ামনিকে অভিভাবকের হেফাজতে দেওয়া হয়।

মোঃ মনিরুজ্জামান, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি