সিরাজদিখান উপজেলা প্রেসক্লাব বিলুপ্ত, সাংবাদিকদের একাত্বতা ঘোষণা

সিরাজদিখান প্রেসক্লাব কার্যালয়ে রোববার দিন ব্যাপী এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভায় মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের অনুরোধে সিরাজদিখান প্রেসক্লাব ও উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকগন একাত্বতা ঘোষণা করেন। এ সময় উপজেলা প্রেসক্লাব বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়।

এখন থেকে ১৯৯০ সালে স্থাপিত সিরাজদিখান প্রেসক্লাব ছাড়া এই উপজেলায় প্রেসক্লাব সংযোগ করে কোন সংগঠন থাকবে না। কেউ এ নাম ব্যাবহার করে কোন সংগঠন চালু করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সিরাজদিখান প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সকল সাংবাদিক মেনে চলবেন বলে সবাই জানান। পরে উপজেলা প্রেসক্লাবের সদস্যরা সিরাজদিখান প্রেসক্লাবের সদস্য ফরম পূরণ করে সভাপতির নিকট জমাদেন।

মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি রাসেল মাহমুদ প্রধান অতিথি ও সাধারণ সম্পাদক ভবতোষ চৌধুরী নুপুর বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তাদের বক্তব্যে বলেন, জেলার প্রতিটি উপজেলায় সাংবাদিকদের মধ্যে কিছু সমস্যা রয়েছে। আজ সিরাজদিখানে সমাধান হলো, পর্যায়ক্রমে প্রতিটি উপজেলায় সমস্যা সমাধান হবে। আপনারা মনে প্রাণে এক সাংবাদিক আরেক সাংবাদিককে ভাইয়ের মত ভাই মনে করবেন। মিলেমিশে কাজ করবেন এবং মনে রাখবেন প্রেসক্লাব একটাই সিরাজদিখান প্রেসক্লাব।

এ সময় সিরাজদিখান প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক পদটি খালি থাকায় মোক্তার হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে মো. মস্তফা, কার্যকরি সদস্য পদে শাহনেওয়াজ শান্ত ও সুলতানা আক্তারের নাম ঘোষণা করা হয়। এছাড়া আগের কমিটির যারা রয়েছেন তাদের পদ বহাল থাকবে। এ কমিটির মেয়াদ আগামী ৯ মাস পরে শেষ হবে। আর যারা সদস্য পদে আবেদন করেছেন তাদের যাচাই বাছাই শেষ করে সদস্য পদ দেওয়া হবে।

সিরাজদিখান প্রেসক্লাব সভাপতি কে.এন.ইসলাম বাবুলের সভাপতিত্বে ও সহ সভাপতি ইমতিয়াজ বাবুলের সঞ্চালণায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাব সাবেক সভাপতি সামসুজ্জামান পনির, বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাব সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন সজল, লেখক, কবি, সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন আনু, মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাব সাংগঠনিক সম্পাদক মঈনুদ্দিন আহমেদ সুমন প্রমুখ।

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, সিরাজদিখান প্রতিনিধি

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here