কেসিসি নির্বাচনে পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারের সংখ্যাই বেশি

আজ মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। এ ভোটগ্রহণ বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। সকালে ভোটারদের উপস্থিতি তুলনামূলক কম থাকলেও বেলা বারার সাথে সাথে বাড়ছে ভোটারদের উপস্থিতি। বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারের সংখ্যাই বেশি।নির্বাচন উপলক্ষে নেওয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

নগরীর ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের তালিমুল মিল্লাত মাদ্রাসার ভোট কেন্দ্রটি একটি দোতলা ভবন। এই কেন্দ্রের দোতলায় পুরুষ এবং নিচতলায় নারীদের ভোট দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সরেজমিনে এ কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, ভোটাররা ধীরে সুস্থে আসছেন। বুথের সামনে বারান্দায় লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন ভেতরে প্রবেশের জন্য। এ কেন্দ্রে পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারের সংখ্যাই বেশি দেখা গেছে। এছাড়া ফাতেমা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র ও পিটিআই রোডের মহসিন হল কেন্দ্রেও দেখা গেছে আওই চিত্র।

কেন্দ্রের বাইরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সক্রিয় রয়েছেন। কেন্দ্রে প্রবেশের সময় গেটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ভোটারদের স্লিপ দেখে তাদের ভেতরে প্রবেশ এবং নম্বর অনুযায়ী বুথের অবস্থান জানিয়ে দিচ্ছেন। এছাড়া ভোটারদের সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন বন্ধ রাখার অনুরোধ করেন তারা।

নগরীর ৩১টি সাধারণ ওয়ার্ডে ১৪৮ জন ও ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৩৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে ভোটার চার লাখ ৯৩ হাজার ৯২ জন। এরমধ্যে পুরুষ দুই লাখ ৪৮ হাজার ৯৮৫ ও নারী দুই লাখ ৪৪ হাজার ১০৭ জন।

প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার রয়েছেন চার হাজার ৯৭২ জন। এ নির্বাচনে পর্যবেক্ষক থাকছেন ২১৯ জন। এর মধ্যে ৪/৫ জন বিদেশি, ৩৫ জন নির্বাচন কমিশনের, ১৭৯ জন বিভিন্ন সংস্থার পর্যবেক্ষক।