জাকজমক আয়োজনে অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

বুধবার সন্ধ্যায় নাচ-গান, সেই সঙ্গে যোগ ব্যয়ামের কলাকৌশলের প্রদর্শনীতে ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করলো ঢাকার ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টার (আইজিসিসি)। জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে এই উদযাপনে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। অনুষ্ঠানে ছিলেন ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।

জাকজমক আয়োজনে অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন 2

হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, “দু দেশের এক, অভিন্ন সংস্কৃতির ধারা বইছে হাজারো বছর ধরে। বাংলার সংস্কৃতির ধারার সাথে ভারতের, ভারতের সাথে বাংলাদেশের পরিচয় করিয়ে দিতে আইজিসিসি নানা উদ্যোগ নিয়েছে। বাংলাদেশের শিল্পীরা যেন সহজে ভারতীয় ভিসা পেতে পারে তার ব্যবস্থা করার আশ্বাস দেন তিনি। পাশাপাশি বাংলাদেশে সম্প্রতি স্থগিত হয়ে যাওয়া যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্রের কার্যক্রম পুনরায় শুরু করার অনুরোধও তিনি জানান।

জাকজমক আয়োজনে অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন 3

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আইজিসিসি তাদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সাংস্কৃতিক আয়োজনটি নিবেদন করেছে দুই কবির উদ্দেশে। সাংস্কৃতিক আয়োজনে অংশ নেয় আইজিসিসির শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

জাকজমক আয়োজনে অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন 5

অনুষ্ঠানের শুরুতে ওয়ার্দা রিহাবের পরিচালনায় পরিবেশিত হয় মণিপুরি নৃত্য প্রযোজনা ‘আনন্দলোকে’, এতে অংশ নেয় আইজিসিসির জেষ্ঠ্য শিক্ষার্থীরা। গুরু যোগেশ বাশিস্তার নির্দেশনায় ‘আজি ধানের ক্ষেতে রৌদ্র ছায়ায়’ শিরোনামে নৃত্য প্রযোজনাটি মঞ্চস্থ করে নবীন শিক্ষার্থীরা। এরপর আইজিসিসির হিন্দি ভাষা বিভাগের শিক্ষার্থীরা পরিবেশন করেন রবীন্দ্রসঙ্গীত ‘মেরা মাথা নত কার দো’, পরে তাদের আরেকটি দল আবৃত্তি করে কাজী নজরুল ইসলামের ‘কামাল পাশা’ কবিতাটি। এরপর মঞ্চে আসে আইজিসির যোগ ব্যয়ামের দলটি। এই দলের নবীন ও জেষ্ঠ্য সদস্যরা মাম্পি দের পরিচালনায় যোগব্যয়ামের দুটি আসনের কলাকৌশল দেখায়।

জাকজমক আয়োজনে অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন 4

আইজিসিকে কত্থক নৃত্যের শিক্ষক মুনমুন আহমেদের পরিচালনায় কত্থক পরিবেশনায় আসে কত্থক বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এ পর্যায়ে দুটি দল কাজী নজরুল ইসলামের ‘হলুদ গাঁদার ফুল’, ও ‘শুকনো পাতার নূপুর পায়ে’ পরিবেশন করে, দুই শিক্ষার্থী রণবির ও রিয়া নৃত্য পরিবেশন করে ‘তোমার খোলা হাওয়া’।

আসাদুজ্জামান নূর ভারতের জনগণের কাছে বাংলাদেশ সম্পর্কে সঠিক ধারণা প্রচারের অনুরোধ করেন। এছাড়া চিত্রকলার শিক্ষক শক্তি নোমানের নির্দেশনায় শিক্ষার্থীদের আঁকা চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হয় মিলনায়তনের লবিতে।

অনুষ্ঠানের শেষে আইজিসিসির বিভিন্ন কোর্সের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সনদ তুলে দেন অতিথিরা।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here