যুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে বলে হুশিয়ার করলেন ম্যাকরন 

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকা নিজেকে প্রত্যাহার করে নিলে যুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে। ডার স্পাইগেল পত্রিকাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ আশঙ্কার কথা জানান ম্যাকরন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার যে হুমকি দিয়েছেন সে সম্পর্কে ম্যাকরন বলেন, “এর মাধ্যমে প্যান্ডোরার বাক্স খুলে যেতে এবং যুদ্ধ বেধে যেতে পারে।” তবে কীভাবে এ যুদ্ধ বাধতে পারে সে সম্পর্কে তিনি কোনো ইঙ্গিত দেননি।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট বলেন, “ডোনাল্ড ট্রাম্প যুদ্ধ চাইবেন এটা আমি বিশ্বাস করি না।” তিনি আরো বলেন, “আমি জানি না মার্কিন প্রেসিডেন্ট কেন এ সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছেন। তবে আমার মতে, তিনি আমেরিকার অভ্যন্তরীণ কারণে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যেতে চান। স্বল্প মেয়াদে এ সিদ্ধান্ত হয়ত কাজ করবে কিন্তু মধ্যম বা দীর্ঘমেয়াদের জন্য তা হবে মারাত্মক কাণ্ডজ্ঞানহীন সিদ্ধান্ত।” আমেরিকাসহ ছয় বিশ্বশক্তির সঙ্গে ২০১৫ সালের জুলাই মাসে পরমাণু সমঝোতা সই করে তেহরান। ইরানের শান্তিপূর্ণ পরমাণু কর্মসূচিতে কিছুটা সীমাবদ্ধতা এনে দেশটির ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের লক্ষ্যে এ সমঝোতা সই হয়।

২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে এটির বাস্তবায়ন শুরু হলেও মার্কিন সরকার শুরু থেকেই এ সমঝোতা বাস্তবায়নে গড়িমসি করে আসছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে নেবেন কিনা সে ব্যাপারে আগামী ১২ মে তার সিদ্ধান্তের কথা জানাবেন বলে কথা রয়েছে।

তবে ওয়াশিংটন ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার হুমকি দিলেও ফ্রান্সসহ অন্যান্য ইউরোপীয় দেশ এটি কার্যকর রাখার পক্ষে জোরালো মত প্রকাশ করেছে। ফরাসি প্রেসিডেন্ট তার সর্বশেষ বক্তব্যের মাধ্যমে ট্রাম্পকে পরমাণু সমঝোতায় ধরে রাখার চেষ্টা করেছেন বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন।