বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ সফল

বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর সফলভাবে পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করেছে স্পেস এক্স। ফ্লোরিডার স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় অরল্যান্ডোতে কেনেডি স্পেস সেন্টার তথা নাসা’র ব্লক-৫ এ এই পরীক্ষা চালানো হয়। এখান থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আগামী সপ্তাহে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটকে মহাকাশে পাঠানো হতে পারে। শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি টুইট বার্তায় স্যাটেলাইট উৎক্ষেণকারী প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্স এই তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় স্পেসএক্সের নতুন ভার্সনের ফ্যালকন ৯ রকেটের গর্জন শোনা গেছে কেনেডি স্পেস সেন্টারের ব্লক ৫ এ। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর পরীক্ষামূলক সফল উৎক্ষেপণ হয়েছে। এর ফলে বাণিজ্যিক যোগাযোগ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের পথ তৈরি হয়েছে; যা আগামী সপ্তাহে হতে পারে।

এ বিষয়ে জানতে বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র সময় শনিবার দুপুরে স্পেস এক্সকে একটা অ্যানালাইসিস রিপোর্ট দেবে। রিপোর্ট ইতিবাচক হলে ওরা আমাদের উৎক্ষেপণের দিনক্ষণ জানিয়ে দেবে। তবে স্যাটেলাইটের পরীক্ষামূক উৎক্ষেপণ সফল হয়েছে।’

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর প্রকল্প পরিচালক মেজবাহ উজ্জামানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনিও পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের কথা জানিয়েছেন। তবে তা সফল হয়েছে কিনা তা এখনই বলা যাবে না। তারা প্রতিবেদনের অপেক্ষায় আছেন।

টুইটারে স্পেসএক্স বলছে, আগামী সপ্তাহে বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের আগে ফ্যালকন ৯ এর স্ট্যাটিক ফায়ার সম্পন্ন হয়েছে। রকেটটি ত্রুটিমুক্ত রয়েছে। তবে তথ্য পর্যালোচনার জন্য কয়েকদিন সময় লাগবে। তথ্য পর্যালোচনা শেষ হলে উৎক্ষেপণের তারিখ নির্ধারণ করা হবে।

এদিকে, মার্কিন বিমান বাহিনীর আবহাওয়ার পূর্বাভাষ বলছে, আগামী ৭ মে আবহাওয়া অনুকূলে থাকতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। ওইদিন আবহাওয়া ৭০ শতাংশ অনুকূলে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। মহাকাশে তবে মহাকাশে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের জন্য আবহাওয়া ৮০ শতাংশ অনুকূলে থাকতে হয়।