বিয়ের প্রলোভনে কলেজ ছাত্রীকে পুলিশ সদস্যের প্রতারনার

ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডুতে এক পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার বিচার দাবী করে সংবাদ সম্মেলন করেছে ওই ছাত্রী ও তার পরিবার।

 

রোববার দুপুরে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে ওই ছাত্রী অভিযোগ করেন, ২০১৫ সালে কলেজে পড়ার সময় জেলার সদর উপজেলার বাদপুকুরিয়া গ্রামের জিন্নাহ আলীমের ছেলে বদরুল আলমের সাথে পরিচয় হয় তার। এরপর তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২০১৬ সালে বদরুলের পুলিশে চাকুরী হয়। এরপর বেশ কয়েকবার তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করে। এতে সে অন্ত:স্বত্তা হয়ে পড়লে তার গর্ভপাত ঘটায়। এরপর থেকে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় বদরুল আলম।

এ ঘটনায় নির্যাতিতা ঝিনাইদহ আদালতে একটি মামলা দায়ের করলে বিভিন্ন সময় তাকে ও তার পরিবারকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে। বদরুল আলম বর্তমানে মেহেরপুরে কর্মরত আছেন। সংবাদ সম্মেলনে নির্যাতিতার পিতা ও স্থানীয় ইউপি সদস্য উপস্থিত ছিলেন। তারা প্রতারক ওই পুলিশ সদস্য বদরুল আলমের শাস্তি দাবী করেন।

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি