চরম ভোগান্তিতে রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালের রোগীরা

সকাল থেকে বিদ্যুৎ না থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন রাজধানীর জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে (পঙ্গু হাসপাতাল) জরুরি বিভাগে আসা রোগীরা। রোববার সকাল ৮টা থেকে বেলা ৩টা ২২ মিনিট পর্যন্ত মাঝে দুই ঘন্টা ছাড়া বাকী সময় বিদ্যুৎ ছিল না বলে হাসপাতালের জরুরি অস্ত্রপচার কক্ষে দায়িত্বরত সিনিয়র স্টাফ নার্স শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, তিনি দুপুর ২টায় ডিউটিতে এসে দেখেন বিদ্যুৎ নেই। সকাল থেকে বিদ্যুৎ নেই বলে তার সহকর্মীরা তাকে জানিয়েছেন। হাসপাতালে জেনারেটর থাকলেও সেটা পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারে না বলে তিনি জানান। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কর্তব্যরত একজন চিকিৎসক জানান, তিনি সকাল ৮ থেকে দায়িত্ব পালন করছেন। মাঝে দুই ঘণ্টা বিদ্যুৎ পেয়েছেন। ১০ জনের অপারেশন করেছেন। এরপর বিদ্যুৎ না থাকায় তিনি কাজ করতে পারছেন না। “বাইরে বেশ কয়েকজন রোগী রয়েছে তাদের অপারেশন করা জরুরি, করা যাচ্ছে না।”

জাভেদ নামে এক ব্যক্তি তার ভাইকে নারায়ণগঞ্জ থেকে নিয়ে এসেছেন। কিন্তু বিদ্যুৎ না থাকায় তারও অস্ত্রপচার হচ্ছে না। এ ব্যাপারে বিদ্যুৎ বিভাগের অভিযোগ কেন্দ্রে যোগাযোগ করা হলে সুপার ভাইজার ফারুক আহমেদ বলেন, ঝড়ের সময় কিছুটা সময় বিদ্যুৎ ছিল না সত্য। তবে হাসপাতাল থেকে কোনো অভিযোগ তারা পাননি।

এ বিষয়ে পঙ্গু হাসপাতালের পরিচালক গনি মোল্লাকে বেশ কয়েকবার ফোন করা হলেও তিনি ধরেননি।