শিষ্যকে শাসন করায় প্রাণ হারাল ধর্মীয় গুরু!

শিষ্যকে শাসন করায় প্রাণ হারাতে হয়েছে বান্দরবান সদরের বাকীছড়া মাঝের পাড়া বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষু মংথুই সাং (নাইন্দা) ভিক্ষুকে। শুধুমাত্র ব্যক্তিগত ক্ষোভের কারণেই এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাদে স্বীকার করেছে খুনী ম্রায়থুই মার্মা।

বিহারের বিভিন্ন কাজের জন্য নাইন্দা ভিক্ষু প্রায় সময়ই শ্রমন সবিদাকে বকাবকি করতেন। এ নিয়ে তার মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ঘটনার দিন বৃহষ্পতিবার (২৬ এপ্রিল) নাইন্দা ভিক্ষু শ্রমন ম্রায়থুইকে খাঁচা থেকে মুরগী বের না করায় বকা দেয়। এতে শ্রমন সবিদা ক্ষিপ্ত হয়ে বিহারের উপাধ্যক্ষ নাইন্দা ভিক্ষুর মাথায় ধারালো দা দিয়ে আঘাত করে। সাথে সাথে মংথুই সাং নাইন্দা ভিক্ষু কোপ খেয়ে মাটিতে লুটে পড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলে তিনি মারা যায়। ঘটনার পর ঘাতক শ্রমন ম্রায়থুই পালিয়ে গেলেও এলাকাবাসীদের সহযোগিতায় ঐ দিন মাঝের পাড়ার পার্শ্ববর্তী ৩নং রাবার বাগান এলাকা থেকে তাকে পুলিশ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

বান্দরবান সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াছির আরাফাত জানান, ঘটনার দিনই আমরা ঘাতক ম্রায়থুই গ্রেফতার করেছি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ এপ্রিল বান্দরবান সদরের কুহালং ইউনিয়নে বাকীছড়া মাঝের পাড়া এলাকায় এক বৌদ্ধ ভিক্ষুকে একই বিহারের শ্রমন কুপিয়ে হত্যা করে।