‘ক্ষমতায় আসার জন্য আ’লীগ বিদেশীদের দুয়ারে ধর্ণা দিচ্ছে’

‘আবারও ক্ষমতায় আসার জন্য বিদেশীদের দুয়ারে দুয়ারে ধর্ণা দিচ্ছে আওয়ামীলীগ। জনগণ এখন আর আওয়ামীলীগকে পছন্দ করে না। সুষ্ঠ নির্বাচন হলে তারা জয়লাভ করবেনা। তাই আবারও ক্ষমতায় আসার লোভে শেখ হাসিনা ও আওয়ামীলীগ বিদেশীদের দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে ধর্ণা দিচ্ছে।’

'ক্ষমতায় আসার জন্য আ’লীগ বিদেশীদের দুয়ারে ধর্ণা দিচ্ছে'

শনিবার বিকালে বান্দরবান ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক মিলনায়তনে বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে জেলা বিএনপি আয়োজিত কর্মীসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন। জেলা বিএনপির সভাপতি ম্যাম্যাচিং এর সভাপতিত্বে কর্মীসভায় আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুুবুর রহমান শামিম, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশীদ হারুন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজা, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন তুষারসহ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মীর নাসির আরও বলেন, সরকার মিথ্যা ও সাঁজানো মামলা দিয়ে তিন বারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে কারাবাসে রেখেছে। তার কোন সু-চিকিৎসা করাতে দিচ্ছে না। খালেদা জিয়া এবং বিএনপিকে বাইরে রেখে দেশে কোন সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ, প্রতিনিধিত্বমূলক ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে না। জনগণ তা হতে দেবে না। বিএনপি নেতাকর্মীদের মিথ্যা ও সাঁজানো মামলা দিয়ে হয়রানি ও গ্রেফতার করা হচ্ছে। কিন্তু দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া আমাদেরকে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই লক্ষে আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছি। তিনি কোন শর্ত ছাড়াই খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়ারও দাবি জানান।

এদিকে বিএনপির কর্মীসমাবেশকে ঘিরে সকাল থেকে জেলা সদরসহ সাতটি উপজেলা থেকে নেতাকর্মীরা সভাস্থলে জড়ো হয়েছে। তবে তাদেরকে কোন মিছিল করতে দেয়া হয়নি। তারা বান্দরবান ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক মিলনায়তনে এই কর্মীসমাবেশ করেন।

উল্লেখ্য, জেলা বিএনপির কর্মীসমাবেশ আয়োজন নিয়ে বান্দরবানে বিএনপির দু’গ্রুপের মধ্যে মত বিরোধ চলে আসছিল। কর্মীসমাবেশের অনুমতি চেয়ে উভয় পক্ষই প্রশাসনের কাছে আবেদন করে। পরে প্রশাসন ম্যাম্যাচিং সমর্থিত গ্রুপকে সমাবেশ করার অনুমতি দেয়। এর ফলে সাচিংপ্রু জেরী সমর্থিত বিএনপি মীর নাছিরের কর্মী সমাবেশ প্রত্যাখ্যান করে।