আজ ভারতের বর্তমান এবং প্রাক্তন অধিনায়কের লড়াই

আইপিএলে এই একটা দ্বৈরথ ঘিরে সব সময় বাড়তি আকর্ষণ থাকে। বিরাট কোহালি বনাম মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। আজ, বুধবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর বনাম চেন্নাই সুপার কিংসের ম্যাচের প্রেক্ষাপটে ভারতের বর্তমান এবং প্রাক্তন অধিনায়কের লড়াইয়ে কিন্তু নজর থাকবে সবার। খেলাটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮ টায়।

ধোনির সিএসকে যেখানে পাঁচটির মধ্যে চারটে ম্যাচ জিতে লিগ টেবলে দু’নম্বরে আছে, সেখানে কোহালির আরসিবি পাঁচটি ম্যাচে জিতেছে মাত্র দু’টোয়। তবে আরসিবির সুবিধে হল, পরপর তিনটে ম্যাচ তাদের খেলতে হবে ঘরের মাঠে। বুধবারের চেন্নাই ম্যাচ যার প্রথম। ঘরের মাঠে খেলা নিয়ে এ বি ডিভিলিয়ার্স মঙ্গলবার বলেন, ‘‘ঘরের মাঠকে নিজেদের দুর্গ বানিয়ে ফেলতে পারলে সব সময় ভাল জায়গায় থাকা যায়। গত বছর আমাদের খুব খারাপ কেটেছিল। এ বার চেষ্টা করতে হবে, সে রকম যেন না হয়।’’

নিজেদের সামনে কী লক্ষ্য, সেটাও পরিষ্কার করে দিয়েছেন এবি। আরসিবি ব্যাটিংয়ের অন্যতম ভরসা বলেছেন, ‘‘ঘরের মাঠে আমরা এ বার যে ম্যাচগুলো খেলব, সেগুলো জিততে হবে। ঘরে ভাল ফল করতে পারলে সেটা প্লে-অফে ওঠার দৌড়ে কাজে আসে।’’

আইপিএলে আরসিবির ব্যর্থতা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে ডিভিলিয়ার্স বলেন, ‘‘প্রথম তিন বছর আমি আরসিবিতে ছিলাম না। তাই বলতে পারব না, এখানে কী ঘটেছে। গত তিন বছর নিয়ে বলতে পারি, আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করেছি। এ বছর আমাদের দলে বেশ কয়েক জন নতুন মুখ আছে। আশা করছি, ট্রফি জেতানোর মতো বিশেষ কাউকে দলে পেয়েছি আমরা।’’

সমস্যা হল, চিন্নাস্বামীতে ডিভিলিয়ার্সদের প্রতিদ্বন্দ্বী দল আবার ধারাবাহিকতার দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছে বাকিদের থেকে। জয়ের ছন্দে থাকা চেন্নাইকে থামানো খুব একটা সহজ কাজ নয়। চেন্নাইয়ের দুই ভারতীয় পেসার এ বার সবার নজর কেড়েছেন। দীপক চাহার এবং শার্দূল ঠাকুর। বিশেষ করে নতুন বলে চাহারকে রীতিমতো ভয়ঙ্কর দেখিয়েছে। এই পেসারকে নিয়ে চেন্নাই কোচ স্টিভন ফ্লেমিং বলেছেন, ‘‘গত দু’বছর ধরে উন্নতি করে চলেছে দীপক। ওর সব চেয়ে বড় গুণ হল, গতির সঙ্গে সুইং করাতে পারা। ঘণ্টায় ১৪০-১৪৩ কিলোমিটার গতিতে বল করতে পারে দীপক। এখন ওকে ধারাবাহিকতা দেখাতে হবে।’’

ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম দুই সেরা অধিনায়কের লড়াইটা যে যথেষ্ট উপভোগ্য হবে, সেটা বলছেন ফ্লেমিং। পাশাপাশি কোহালির দল নিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া, ‘‘আরসিবির ব্যাটিং দারুণ। বোলিংও সে রকম। আমরা ছন্দে আছি ঠিকই, কিন্তু ওদের হারাতে গেলে খুব ভাল খেলতে হবে। বিশেষ করে যদি ওদের ব্যাটিংকে চাপে ফেলতে হয়।’’ আরসিবি বোলিং নিয়ে ফ্লেমিংয়ের মন্তব্য, ‘‘ওদের বোলাররাও খুব ভাল। উমেশ যাদব নতুন বলে বিপজ্জনক। বেশ ছন্দে আছে। সঙ্গে চহাল আছে।’’