সংবাদ প্রকাশে ফরিদপুরে পাঁচ সাংবাদিকের নামে মানহানি মামলা

ফরিদপুরের বোয়ালমারী থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক চন্দনা পত্রিকার প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক কাজী আশরাফুল হাসানসহ (৫০) পাঁচ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ফরিদপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চার নম্বর আমলি আদালতে মানহানির মামলা করেছেন চুকিনগর গ্রামের মুনসুর মোল্লার ছেলে আনিস মোল্লা।

সোমবার (২৩ এপ্রিল) মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলা নম্বর বোয়ালমারী সি/আর ১৩২/১৮। আদালত আসামিদের আগামী ২৩ মে আদালতে হাজির হওয়ার সমন জারি করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৬ এপ্রিল সাপ্তাহিক চন্দনায় ‘প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে আপত্তিকর অবস্থায় আনিস’ শিরোনামে একটি সংবাদ ছাপা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে আনিস তার ৫০ লাখ টাকার মানহানি হয়েছে মর্মে আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার অপর অভিযুক্তরা হলেন সাপ্তাহিক চন্দনার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কাজী হাসান ফিরোজ (৪০), ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সুমন খান (৩৫), আঞ্চলিক প্রতিনিধি কামরুল সিকদার (৩৭) ও স্থানীয় সংবাদদাতা রেজাউল করিম (৩০)।

মামলার আরজিতে আরো উল্লেখ করা হয়, রেজাউল করিম তার (আনিস) কাছে মাসিক ১০ হাজার টাকা মাসোহারা দাবি করেন। তিনি এ দাবি পূরণ না করায় আসামিরা যোগসাজস করে ওই পত্রিকায় মানহানিকর সংবাদ ছাপে।

এ ব্যাপারে সাপ্তাহিক চন্দনার সম্পাদক কাজী আশরাফুল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, ‘অনেক দিন পত্রিকার খোঁজ খবর রাখি না। তাছাড়া এসব নিউজ পত্রিকায় ছাপানোর ব্যাপারে আমি কিছু জানি না।’ ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কাজী হাসান ফিরোজ বলেন, ‘মামলাটি ষড়যন্ত্রমূলক। আইনি প্রক্রিয়ায় এর জবাব দেওয়া হবে।’

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি