‘শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অংশ নিন’

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন- সুশিক্ষা গ্রহণ করে সমাজ, রাষ্ট্র ও পরিবারে ভূমিকা রাখতে হবে। আজকের ছাত্ররা আগামী প্রজম্মের কর্ণধার। তোমরাই আগামীর নেতৃত্ব দেবে। সমাজ তোমাদের দিকে তাকিয়ে আছে। তাকিয়ে আছে পরম পিতা- মাতা আর পরিবার-পরিজন। সর্বোপরি সমাজ এবং রাষ্ট্র।

শনিবার দুপুরে জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। পরিকল্পিত শিক্ষা গ্রহণ করে শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উখিয়া-টেকনাফের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবদূর রহমান বদি এমপি বলেন, বীর বাহাদুর আর আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গোলাম। প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশে জনগণের সেবক হিসেবে সারথী হয়েছি। শেখ হাসিনা সরকার দেশব্যাপী উন্নয়নের জোয়ার বয়ে দিয়েছেন। যে জোয়ারে বান্দরবান এবং উখিয়া-টেকনাফে পুর্বের সরকার আমলের চেয়ে বহুগুণ এগিয়েছে। এসময় তিনি বিদ্যালয়ের কল্যাণে এক লাখ টাকার অনুদান ঘোষণা করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে এম পি বদি আরও বক্তব্য রাখেন, বান্দরবান জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন, পুলিশ সুপার জাকির হোসেন, বান্দরবান জেলা পরিষদ সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর, আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য কাজল কান্তি দাশ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক লক্ষীপদ দাশ প্রমুখ।

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও সদর ইউপির চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম সরওয়ার কামাল, নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর শেখ, ওসি (তদন্ত) জায়েদ নুর, ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ওসি (তদন্ত) ইমন চৌধুরী, বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব খাইরুল বশর, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রাজা মিয়া, অধ্যাপক শফি উল্লাহ, আওয়ামী লীগ নেতা আবু তাহের কোম্পানি, ইমরান মেম্বার, ঘুমধুম ইউপির চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ, সোনাইছড়ি ইউপির চেয়ারম্যান বাহাইন মার্মা, বাইশারী ইউপির চেয়ারম্যান মো. আলম কোম্পানি, ঘুমধুম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি খালেদ সরওয়ার হারেজ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি জাহেদুল আলম চৌধুরী।

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি