বিআরটিসি বাসের চাপায় তরুণীর পা বিচ্ছিন্ন 

ঢাকায় দুই বাসের রেষারেষিতে হাত হারিয়ে কলেজছাত্র রাজীবের মৃত্যুর পর একটা সপ্তাহ না পেরোতেই বাসের চাপায় পা হারালেন আরেক তরুণী। আহত রোজিনাকে (২১) জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়েছে। তার ডান পা উরু থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বলে জানা যায়। সাংবাদিক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজার বাসায় কাজ করতেন রোজিনা। 

তিনি বলেন, রোজিনা মহাখালীতে তার এক আত্মীয়ের বাসায় বেড়াতে গিয়েছিল। সেখান থেকে গুলশানের নিকেতনে তাদের বাসায় ফেরার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ওসি ফরমান আলী বলেন, ওই তরুণী ফুটপাত থেকে নেমে রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এ সময় মহাখালী থেকে কাকলীমুখী বিআরটিসির একটি দ্বিতল বাস তাকে ধাক্কা দেয়। পুলিশ সদস্যরা উদ্ধার করে ওই নারীকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। বিআরটিসির ওই বাস এবং তার চালক শফিকুলকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

গত ৩ এপ্রিল কারওয়ানবাজার মোড়ে বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের দুই বাসের প্রতিযোগিতার মধ্যে এক হাত হারিয়েছিলেন তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার তার মৃত্যু হয়। এই ঘটনা নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনা চলছে। ঢাকায় বেপরোয়া বাস চালানো ঠেকাতে চালকদের জরিমানাও করা হচ্ছে। তার মধ্যেই এই দুর্ঘটনা ঘটল।