বেপরোয়া গাড়ি চালানোয় হেলপার ও চালককে কারাদণ্ড

বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোর অভিযোগে চার বাসের হেলপার ও চালককে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ট্রাফিক আইন লঙ্ঘনে এবং বেপরোয়া গতিতে বাস চালানোয় তাদের দণ্ড দেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা থেকে কারওয়ান বাজার আন্ডারপাস ও মোড়ে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন ডিএমপির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মশিউর রহমান। কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, গাবতলী সদরঘাট রুটে চলাচলকারী ৮ নম্বর বাসের হেলপার সজিব, নিউ ভিশন বাসের চালক মামুন, আয়াত বাসের চালক রুহুল আমিন। তাদের প্রত্যেককে এক মাস করে এবং লাব্বাইক বাসের হেলপার স্বপনকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

মশিউর রহমান বলেন, রাজধানীতে প্রায় সময় চালকরা বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালায়। তাদের মধ্যে ওভার টেকিংয়ের প্রবণতা প্রবল। এতে অনেকের অঙ্গহানি হচ্ছে, প্রাণও হারাচ্ছেন অনেকেই। মূলতঃ ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোর বিরুদ্ধে এ অভিযান চালানো হয়।

তিনি বলেন, দুই ঘণ্টাব্যাপী অভিযানকালে চার বাসকে বেপরোয়া গতিতে চলতে দেখা যায়। পরে তাদের আটকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে দোষ স্বীকারের ভিত্তিতে দুই চালক ও এক হেলপারতে এক মাস ও অপর এক হেলপারকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন বন্ধে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পর্যাযক্রমে এ অভিযান চালাবে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।