শৈলকুপায় বিদ্যালয়ের সভাপতি সেজে প্রতিষ্ঠান বাধাগ্রস্থের অভিযোগ

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় হামদামপুর বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি সেজে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির অগ্রযাত্রা বাধাগ্রস্থের অভিযোগ করেছেন কর্মরত শিক্ষকগণ। বিদ্যালয়টির সাবেক সভাপতি যিনি ২০১২ সালের ১৪ মার্চ পারিবারিক সমস্যার কারন দেখিয়ে সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগ করেন। এরপর নিয়মানুযায়ী আবার সভাপতি নির্বাচিত করা হয়।

বর্তমানে নিবিড়প্রত্যন্তপল্লী হামদামপুর গ্রামের এই প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্সা প্রতিষ্ঠানটির বেহালদশা। সরকার প্রাথমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সরকারী করনের আওতায় আনার সাথে সাথে পদত্যাগকারী সভাপতি সুচতুর মামুনুর রশীদ অনিয়ম আর পেশিশক্তির বলে পদে ফিরতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন, ঢাল বিহীন তলোয়ারের মত তিনি নিধিরাম সর্দার হয়ে স্কুলটির অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করতে বিভিন্ন দপ্তরে সভাপতি সেজে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ফলে সরকারের সদিচ্ছা থাকা সত্বেও অভিযোগ তদন্তের ফাঁদে পড়ে বার বার কারক্ষেপন হয়ে আজও জাতীয়করণ তালিকায় অন্তভ’ক্ত হতে পারেনি বিদ্যালয়টি। প্রধান সড়ক পার্শ্ববর্তি ৩৩ শতক জমিতে অবস্থিত বিদ্যালয়টির শিক্ষক-শিক্ষার্থী সংখ্যা ও উপস্থিতি সন্তোষজনক হলেও স্থানীয় প্রভাবশালীদের রাজনৈতিক যাঁতাকলে আটকে দীর্ঘদিন উন্নয়নবঞ্চিত রয়েছে।

খোজ নিয়ে জানা গেছে ২০১১ ও ২০১৩ সালে অন্যত্র চাকুরি পাওয়ার সুবাদে ২০০৫ সালে নিয়োগপ্রাপ্ত আনোয়ারা খাতুন ও এসএম শাহরিয়ার নামে দুই শিক্ষক হামদামপুর বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট লিখিত অব্যাহতি দিয়ে চাকুরি ছেড়ে চলে যান, সম্প্রতি সময়ে জাতীয়করনের ঘোষণা আসামাত্রই এলাকার প্রভাবশালী মহলদ্বারা প্রভাবিত হয়ে পূর্বের সভাপতি মামুনুর রশিদ সভাপতি শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যের আশায় হওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠেন এবং স্কুলটি জাতীয়করন কাগজপত্রের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচারসহ অফিসে হাজির হয়ে সম্পুর্ণ অযৌক্তিভাবে সভাপতি পদ দাবি করেন বলে বিদ্যালয়েল প্রধান শিক্ষিকা ইয়াছমিন নাহার জানান। পদ থেকে পদত্যাগ করা সভাপতি মামুনুর রহমান পদের ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি তবে বৈধভাবে শিক্সক নিয়োগের বিষয়ে তিনি সোচ্চার কার্যক্রম চালাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

বর্তমান সভাপতি শাহজাহান বিশ্বাস বলেন, বিদ্যালয়টি পূর্বের সভাপতির নানা অনিয়ম আর অনভিজ্ঞতার কারনে পিছিয়ে গেছে। এব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্সা অফিসার রেজাউল ইসলাম জানান, বর্তমানে হামদামপুর বিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম চলমান রেখে বৈধকাগজপত্র জাতীয়করনের অন্তর্ভূক্তির জন্য আবারও পাঠানো হচ্ছে। যথাসময়ে সকল সমস্যার সমাধান হবে বলে বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদকে আশ্বাস দিয়েছেন।

মোঃ জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি