ব্যাংকঋণের সুদহার কমানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে বিনিয়োগের খরা কাটাতে ব্যাংকঋণের সুদহার এক অংকে নামিয়ে আনতে বলেছেন। গত মাসে দলীয় এক অনুষ্ঠানে কথা বলার মাসখানেকের মাথায় শুক্রবার গণভবনে ব্যাংক মালিকদের সামনে বিষয়টি আবারও তুলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, “ব্যাংকের সুদের হারটা আপনাদের একটু কমাতে হবে। তা না হলে বিনিয়োগ হওয়া সম্ভব না। কাজেই এটা সিঙ্গেল ডিজেটে আনতেই হবে।”

সরকার ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে বার বার বলার পরও ব্যাংকগুলোতে ঋণের সুদের হার কমছে না। বরং বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো ঋণের নতুন সুদ হার কার্যকর করে দুই থেকে ৫ শতাংশ পর্যন্ত সুদহার বাড়িয়ে দিয়েছে বলে খবর বের হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে সুদের হার কমানোর কোনো নির্দেশনা এখনো বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোতে আসেনি বলে ব্যাংকগুলোর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে।

তবে এর মধ্যে ব্যাংকারদের সঙ্গে অর্থমন্ত্রী ও গভর্নরসহ অন্যান্য নীতিনির্ধারকদের বৈঠকে সুদের হার কমানোর বিষয়ে সবাই একমত পোষণ করলেও ব্যাংকগুলো এখন তা মানছে না। বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলনায় নিহতদের পরিবার ও আহতদের আর্থিক সহায়তা দেন প্রধানমন্ত্রী।

একই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকসের (বিএবি) পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ১৬৩ কোটি হস্তান্তরের পর তাদের তাদের উদ্দেশ্যে সুদহার কমানোর কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।