ফরিদপুরে শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি সংস্কারসহ পাঁচ দফা দাবিতে ফরিদপুরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা। 

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্লাকার্ড সম্বলিত ব্যানারে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে।

‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, কোটা বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘মেধা দিয়ে গড়ব দেশ, ষোল কোটি মানুষের বাংলাদেশ’ ‘আমার দেশ আমার মা, বৈষম্য মানিনা’ ‘মেধাবীদের কান্না, আর না আর না’ ‘চাইলাম কোটা সংস্কার, হইলাম রাজাকার’- এ জাতীয় স্লোগানে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভে কলেজের বিভিন্ন শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হলো- কোটাব্যবস্থা সংস্কার করে ৫৬ থেকে ১০ শতাংশে নামিয়ে আনা, কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পেলে শূন্য পদগুলোতে মেধারভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া, নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা সুবিধার একাধিকবার ব্যবহার বাতিল, কোটায় বিশেষ নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল এবং চাকরিতে ঢোকার ক্ষেত্রে সবার জন্য অভিন্ন বয়সসীমা নির্ধারণ।

মানববন্ধনে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা বক্তব্য দেন। এসময় শিক্ষার্থীরা বলেন, দেশের মাত্র তিন শতাংশ মানুষের জন্য ৫৬ শতাংশ কোটা বিদ্যমান রয়েছে। ৫৬ শতাংশ কোটা রাখার কারণে প্রকৃত যোগ্যরা চাকরি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। কোটা কমিয়ে ১০ শতাংশে নিয়ে আসতে হবে। মেধাবীদের জন্য দেশের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক জায়গা নিশ্চিত করতে কোটাব্যবস্থা সংস্কার করতে হবে।