ঢাবি থেকে পুলিশ সদস্যদের অপসারণ

মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার জানিয়েছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) থেকে পুলিশ সদস্যদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এছাড়া ক্যাম্পাসের ভেতর পুলিশ সদস্যদের ইউনিফর্ম পরে যেতেও নিষেধ করা হয়েছে। বিকালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা জানান।

মারুফ হোসেন আরও জানান, ঢাবি ক্যাম্পাস থেকে পুলিশ সদস্যদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ক্যাম্পাসে এখন কোনও পুলিশ নেই।

কোটা সংস্কাররের দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। অবরোধের কারণে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। রাজধানীর ব্যস্ততম সড়কটিতে অচলাবস্থা তৈরি হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি, এরপর একে একে বুয়েট, ইউআইইউ, আইইউবি, প্রাইম, এশিয়া, নর্দান , স্টামফোর্ডসহ আরো বেশ কয়েকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে।

ধানমন্ডি ১৫ ও মিরপুর রোডের বিভিন্ন পয়েন্টে রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে বিক্ষোভ করছেন স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা। এর ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। সড়কে বেশ কিছু সময়য়ের জন্য থমকে ছিল সব যানবাহন। বনানী-মহাখালী-গুলশানগামী রোড ব্লক করে বনানীতে পাঁচ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন। রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলন করায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় ভোগান্তিতে পড়ে অনেক মানুষ।

এদিকে আফতাবনগরে রামপুরা ব্রিজের কাছে ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির সামনে বিক্ষোভ করছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। এদিকে হাউজ বিল্ডিং মোড় ও বসুন্ধরায় অবস্থিত ৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বসুন্ধরা আবাসিক গেটে বিক্ষোভ সমাবেশ করছেন। ফলে কুড়িল বিশ্বরোড থেকে মালিবাগ পর্যন্ত পুরো এলাকায় যানবাহনের তীব্র সংকটে পড়েছেন যাত্রীরা।

অপরদিকে ঢাবি ক্যাম্পাসে গিয়ে দেখা গেছে, ক্যাম্পাসের কোথাও পুলিশ নেই। ক্যাম্পাসের বাইরে মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণ, দোয়েল চত্বর, শাহবাগ, চানখাঁর পুলের মোড় ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের আশপাশে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।