‘আমি মরি নাই, বেঁচে আছি’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে রাতভর জড়ো হয়েছিলেন আন্দোলনকারী সাধারণ শিক্ষার্থী ও চাকরি প্রত্যাশীরা। কোটা সংস্কারের দাবিতে শাহবাগে আন্দেলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর টিয়ারসেল ও ফাঁকা গুলি চালিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে পুলিশ। রাতে পুলিশ আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এরপরই ফাঁকা হয়ে যায় শাহবাগ। টিয়ারশেলের আঘাতে আহত হয়েছেন অনেক শিক্ষার্থী।

রাত আনুমানিক দেড়টায় শাহবাগ জাতীয় যাদুঘরের সামনে উপস্থিত হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে এ বি সিদ্দিক বললেন, আমি মরি নাই। বেঁচে আছি। কে বা কারা আমার মিথ্যা মৃত্যু সংবাদ প্রচার করেছে।

রোববার সন্ধ্যায় টিউশনি করে এক বন্ধুকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আবাসিক হলে ফিরে যাওয়ার সময় আমার বন্ধুটি পুলিশের ছোঁড়া কাঁদানে গ্যাসে আক্রান্ত হয়ে মাথা ঘুরে পড়ে যায়। এ সময় তাকে উদ্ধার করতে গেলে একটি টিয়ারসেল ছুটে এসে চোখের নিচে কেটে সামান্য আঘাত পাই। পরে হাসপাতালে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে ফিরে যাই। এরই মধ্যে কে বা কারা আমার মিথ্যা মৃত্যু সংবাদ প্রচার করে।

আবু বক্কর এ ধরনের মিথ্যা সংবাদ প্রচার থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, আমার বাড়ি রংপুর। এ ধরনের মিথ্যা সংবাদ আমার পরিবার বা আত্নীয়স্বজনরা শুনলে কি ধরনের আঘাত পাবে তা কি কেউ ভেবে দেখেছেন? আবু বক্কর সিদ্দিক মারা গেছে এমন খবরে কোটার দাবিতে আন্দোলনকারীরা ফুঁসে উঠে। তারা চারুকলার সামনে জড়ো হয়ে টায়ার ও বাঁশ জ্বালিয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিতে থাকে। এ সময় দফায় দফায় আন্দোলনকারী ও পুলিশের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

রাত দেড়টার দিকে এবি সিদ্দিককে নিয়ে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ছাত্রলীগ সভাপতি সোহাগ ও জাকিরসহ ছাত্রলীগের নেতারা উপস্থিত হন। এ সময় সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানকও উপস্থিত ছিলেন। তিনি বারবার টিভি চ্যানেলগুলোর সামনে এবি সিদ্দিককে সত্য ঘটনা তুলে ধরার ব্যবস্থা নিতে ছাত্রলীগ নেতাদের পরামর্শ দেন। পরে তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়ায়দুল কাদেরকে দায়িত্ব দিয়েছেন। আজ সোমবার বেলা ১১টায় আলোচনা হবে।

https://www.facebook.com/sobur.k.collins/videos/10211334604737395/