তথ্য ফাঁস, ফ্রান্সে সারকোজিকে আটক

নির্বাচনি প্রচারের কাজে খরচ করার জন্য ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজি লিবিয়ার সাবেক শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির কাছ থেকে দুই কোটি রুপি ঘুষ গ্রহণ করেছিলেন বলে তথ্য ফাঁস করেছেন একজন প্রত্যক্ষদর্শী। গাদ্দাফির সঙ্গে সারকোজি’র সাক্ষাতে দোভাষীর দায়িত্ব পালনকারী অনুবাদক মিফতাহ মিসৌরি এ তথ্য ফাঁস করেছেন।

গাদ্দাফির অত্যন্ত আস্থাভাজন এই অনুবাদক বলেছেন, ২০০৭ সালে নিকোলাস সারকোজির নির্বাচনি প্রচারদলকে দুই কোটি ইউরো অর্থ সহায়তা দিয়েছিলেন লিবিয়ার সাবেক শাসক কর্নেল গাদ্দাফি।

মিসৌরি বলেন, এ উপলক্ষে সারকোজির পক্ষ থেকে পাঠানো নির্বাচনি প্রচার টিমের একটি প্রতিনিধিদল ত্রিপোলিতে লিবিয়ার পদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। ওই বৈঠকে সারকোজির পক্ষ থেকে পাঁচ কোটি ইউরো অর্থ সহায়তা চাওয়া হলেও গাদ্দাফি সরকার দুই কোটি ইউরো দিতে সম্মত হয়  এবং তা প্রদান করে। গাদ্দাফির সাবেক অনুবাদক তার দপ্তরে ওই অর্থ লেনদেন সংক্রান্ত চুক্তির একটি কপিও সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন।

২০০৭ সালে গাদ্দাফির কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে সম্প্রতি ফ্রান্সে সারকোজিকে আটক করা হয়। পরে অবশ্য জিজ্ঞাসাবাদ ও অভিযোগ গঠন থেকে তিনি জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।