অহেতুক জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করবেন নাঃ কামরুল

কারাবন্দি খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে বিএনপি নেতারা বিভ্রান্তি ছড়াতে চাইছেন বলে দাবি করেছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। “বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা নিয়ে অহেতুক জনমনে বিভ্রান্তি ছড়ানো থেকে বিরত থাকুন,” বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে বলেছেন তিনি। শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা চলার মধ্যে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক আলোচনা অনুষ্ঠানে একথা বলেন আওয়ামী লীগ নেতা কামরুল।

৭৩ বছর বয়সী খালেদা জিয়া কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন দাবি করে সুচিকিৎসার জন্য তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছে বিএনপি। তার চিকিৎসায় কারা কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে যে মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে, তাও ‘লোক দেখানো’ বলে বিএনপি নেতাদের দাবি। কামরুল বলেন, “আপনারা খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্ভিগ্ন, এটা নিয়ে অহেতুক বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন।

“একজন রাজনৈতিক নেত্রী হিসেবে, দুই বারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, সরকার তার স্বাস্থ্যের বিষয়ে কারাবিধি অনুযায়ী সব ব্যবস্থা করছে। যার ফলশ্রুতিতে তাকে আজকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নেওয়া হয়েছে।

“তিনি (খালেদা জিয়া) তো এমনিতেই আর্থরাইটিসের রোগী, এমনিতেই তার কোমর ভাঙা, এমনিতেই তার হাঁটতে কষ্ট হয়। তার জন্য যতটুকু চিকিৎসা দরকার, সেটা করা হচ্ছে। এটা নিয়ে অহেতুক জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করবেন না।”

আওয়ামী লীগ বিএনপি ভাঙার চেষ্টা করছে বলে যে অভিযোগ করা হচ্ছে, তা প্রত্যাখ্যান করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, “আরে বিএনপি ভাঙবে কি এক থাকবে, সেটা আপনাদের বিষয়। আপনাদের শুভবুদ্ধিসম্পন্ন নেতারা একজন ফেরারী আসামির নেতৃত্ব মানতে চায় না, তাকে ঘৃণাভরে দেখেন। এই ঘৃণা করার কারণে যদি বিএনপি ভাঙে, ভাঙতে পারে। আমাদের কিছু করার নাই।” বিএনপি পরাজয় জেনেই আগামী নির্বাচনে আসতে চাচ্ছে না বলে দাবি করেন কামরুল।

“খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দিলে আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব না, এটা জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য আপনারা বলছেন। নির্বাচনে জয়লাভ করতে পারবেন না, এটা আপনারা জানেন। কাজেই নির্বাচন থেকে কিভাবে দূরে থাকা যায়, এর জন্য দুরভিসন্ধিতে ব্যস্ত হয়ে আছেন।”